মহাসড়কে উঠায় রিকশাচালককে মারতে মারতে রাস্তায় ফেলে দিলেন পুলিশ

৮:৩৪ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, নভেম্বর ২৯, ২০১৯ ঢাকা, দেশের খবর

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ মহাসড়কে প্রবেশ করায় এক রিকশাচালককে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই হাইওয়ে পুলিশের এক সদস্যদের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) রাত ৮টার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের গোড়াই মিলগেট এলাকায় এই মারধরের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

আহত রিকশাচালক গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার বাঁশকাটা গ্রামের সৈয়দ আলীর ছেলে মো. ইউনুছ মিয়া (৪০)। ইউনুছ তার স্ত্রীসহ এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে গোড়াই উত্তর নাজিরপাড়া করিমের বাসায় ভাড়া থাকেন।

ইউনুছ মিয়া অভিযোগ করে বলেন, গোড়াই বাসস্ট্যাড এলাকা থেকে যাত্রী নিয়ে বাড়ির দিকে রওনা দিচ্ছিলেন, পথিমধ্যে রাস্তা ফাঁকা থাকায় তার রিকশাটি মেইন রোড দিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন। সে সময় মহাসড়কে দাঁড়িয়ে থাকা এক পুলিশ সদস্য তাকে থামতে বলেন। সময় চান রিকশাটি সাইড করার।

কিন্তু হাইওয়ে পুলিশের কন্সটেবল ও গাড়ির ড্রাইভার নুরুল ইসলাম তাকে শার্টের কলার ধরেই মারতে মারতে রাস্তায় ফেলে দেন। মহাসড়কের রাস্তার পিচঢালাতে মাথা ও গালে আঘাত প্রাপ্ত হন। মারার এক পর্যায়ে রাস্তায় পরে যান ওই পুলিশ সদস্য। পরে উঠে গিয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে আবারো রিকশাচালককে লাথি, কিল, ঘুষি মারতে থাকেন। পরে স্থানীয়রা রিকশা চালককে একটি হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। বর্তমানে আহতবস্থায় আছেন রিকশাচালক ইউনুছ।

এ বিষয়ে গোড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান জানান, রিকশাচালকের মহাসড়কে রিকশা নিয়ে যাওয়াকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটেছে। তবে এ ঘটনায় জড়িত পুলিশ সদস্যকে কড়াভাবে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

Loading...