• আজ ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গণরুম পরিদর্শনে গিয়ে লাঞ্ছিত ভিপি নুর

১:৩১ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ডিসেম্বর ৪, ২০১৯ শিক্ষাঙ্গন
nor-13

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বিজয় একাত্তর হলের গণরুমে শিক্ষার্থীদের দেখতে গিয়ে ছাত্রলীগ কর্মীদের হাতে হেনস্তার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর। মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। তবে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ভিপি নুর অসৌজন্যমূলক আচরণ করেছেন বলে পাল্টা অভিযোগ করেছে ছাত্রলীগ।

এ ঘটনায় জড়িতদের বিচার চেয়ে হলটির প্রাধ্যক্ষ বরাবর একটি অভিযোগ দিয়েছেন ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর। এতে তিনি বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে বিজয় একাত্তরের গণরুমে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দেখা করতে গেলে মে-৩০০২ ক রুমে পালি ও বুদ্ধিস্ট বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী সাদিকসহ বেশ কয়েকজন ধাক্কাধাক্কি ও গালাগাল করে। এক পর্যায়ে আমার হাত ধরে টানাটানি করে। শিক্ষার্থীদের নির্বাচিত সর্বোচ্চ প্রতিনিধি হয়েও হলে গিয়ে এমন অসৌজন্য আচরণ ও লাঞ্ছিত হওয়া খুবই দুঃখজনক। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করছি।

নুর বলেন, ‘এর আগেও আমি এসএম হলে গিয়ে ছাত্রলীগের হেনস্তার শিকার হয়েছি। প্রশাসন ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েও বিচার করেনি। বিচার না করার কারণে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটছে।’ শিক্ষার্থীদের জন্য কাজ করতে গেলেই ছাত্রলীগের বাধার সম্মুখীন হন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

তবে ছাত্রলীগের অভিযোগ, ভিপি নুর ওই হলে গিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেছেন। জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘ভিপি ওই হলে গিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেছে বলে আমরা পাল্টা অভিযোগ পেয়েছি। সৌজন্যতা শুধু এক পক্ষ থেকে দেখালে হবে না, উভয় পক্ষ থেকে দেখাতে হয়।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বলেছেন, নুরুলের এই আচরণ ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন’৷ ভিপি নুরুল হক বিজয় একাত্তর হলের আবাসিক ছাত্র নন। সেখানে গণরুম পরিদর্শনে যাওয়ার আগে তিনি প্রশাসনের কোনো অনুমতি নেননি বা সহযোগিতাও চাননি। এটি চরম দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণ। শুধু এই ঘটনা নয়, এর চেয়ে বেশি কিছুও যদি ঘটত, তার দায়ভার নুরুলেরই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের ভিপির কাছ থেকে এ ধরনের আচরণ কাম্য নয়। আমরা তাঁকে আরও দায়িত্বশীল ও বিবেচক হওয়ার আহ্বান জানাই।’

এ বিষয়ে ভিপি নুরুলের বক্তব্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে এক হল থেকে আরেক হলে গেলে অনুমতি নেওয়ার কোনো নিয়ম বা আইন নেই।

ভিপি নুরুল হক আরো বলেন, ‘ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে প্রায়ই অভিযোগ করা হয় যে আমরা শিক্ষার্থীদের জন্য কাজ করি না, তাঁদের খোঁজ-খবর নিই না। কিন্তু আসলে ছাত্রলীগ চায় না, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আমাদের সংযোগ তৈরি হোক। এই ঘটনার মাধ্যমে তা আবারও প্রমাণিত হলো।’

Loading...