ঝিকরগাছায় আদম ব্যাপারী স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর থানায় অভিযোগ

৬:০৭ অপরাহ্ণ | বুধবার, ডিসেম্বর ৪, ২০১৯ খুলনা
jessore

মহসিন মিলন,বেনাপোল প্রতিনিধিঃ যশোরের ঝিকরগাছায় আদম ব্যাপারী স্বামী আব্দুল আলিমের বিরুদ্ধে স্ত্রী থানায় অভিযোগ করেছেন। অভিযুক্ত আলিম ঝিকরগাছা উপজেলার আটুলিয়া গ্রামের ইরাদ আলীর পুত্র।

অভিযোগে জানা গেছে, ঝিকরগাছা পৌর সদরের মোবারকপুর  গ্রামের মৃত আব্দুল মাজিদের কন্যা সেলিনা খাতুনের সাথে চার বছর আগে আটুলিয়া গ্রামের ইরাদ আলীর পুত্র বধু নাই প্রবাসী আব্দুল আলিমের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে লাবিব হোসেন (৩) নামের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে আব্দুল আলিম তার স্ত্রীকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন শুরু করেন। এছাড়া আব্দুল আলিম আদম ব্যাপারী হওয়ায় দেশে এসে বিভিন্ন মানুষকে বিদেশে নেয়ার জন্য গোপনে টাকা নিয়ে যান। পরবর্তীতে পাওনাদাররা তার স্ত্রী সেলিনা খাতুনের বাপের বাড়ি মোবারকপুরে গিয়ে বিভিন্ন গালমন্দসহ চাপ সৃষ্টি করতে থাকেন।

এসব বিষয়ে আব্দুল আলিমের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি স্ত্রী-সন্তানের খোঁজখবর নেয়াসহ সংসার খরচ বন্ধ করে দেন। ইতিপূর্বে গত বছরের জুলাই ও সেপ্টেম্বর মাসে দুই কিস্তিতে তিনি মোবারকপুর  গ্রামের আলমগীর হোসেনকে মালেশিয়াই না নিতে পেরে ২ লাখ ২৫ হাজার টাকা ফেরত দিয়েছেন বলে জানা গেছে। অপরদিকে আদম ব্যাপারী আব্দুল আলিম তার এসব অপকর্ম থেকে বাঁচতে স্ত্রী সেলিনা খাতুনের বিরুদ্ধে ১০ লাখ টাকা ও ৩০ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে বাড়ি থেকে চলে যাওয়া, শশুরবাড়িতে ঘর নির্মাণ, শ্যালকের চাকরিসহ বিভিন্ন মিথ্যা অভিযোগ এনে সম্প্রতি ঝিকরগাছা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

এদিকে গত মঙ্গলবার সকালে ঝিকরগাছায় শিশুসন্তানসহ স্ত্রী সেলিনা খাতুন ও শাশুড়ি জাহানারা বেগম এসে তার স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করে। বর্তমানে সেলিনা খাতুন সন্তান নিয়ে পিত্রালয়ে অবস্থান করলেও চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। দ্রুত সময়ের মধ্যে আদম ব্যাপারী আব্দুল আলিমের বিরুদ্ধে তার স্ত্রী সেলিনা খাতুন আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করবেন বলে জানান। তবে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অভিযুক্ত আব্দুল আলিম তার বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ অস্বীকার করেন।

Skip to toolbar