সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ৬ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ইভটিজিং রোধে প্রাচীর তুলে দিল স্কুল কর্তৃপক্ষ

৬:১১ অপরাহ্ণ | শনিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৯ খুলনা
School

মহসিন মিলন,বেনাপোল প্রতিনিধিঃ যশোরের খাজুরা বাজারের পাশে রাস্তায় দেয়াল তুলে রাস্তাটি বন্ধ করে দিয়েছে খাজুরা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, স্থানীয় বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা জহর আলী লস্করের বিল্ডিং ভেঙে স্কুলের জন্য জমি চেয়েছিলেন ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আতিয়ার রহমান। ওই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় দুই মাস আগে দেয়াল তুলে রাস্তাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। প্রধান শিক্ষকের দাবি, ওই জমি স্কুল কর্তৃপক্ষের।

বিষয়টি সুরাহার জন্য মুক্তিযোদ্ধা জহর আলীসহ বাজারের ব্যবসায়ী ও স্থানীয় বাসিন্দারা দেয়াল অপসারণ করতে যশোরের জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করেছেন।

ব্যবসায়ীরা জানান, বাজারের ওই রাস্তার দুপাশে ১৯টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এই রাস্তাটি প্রধান সড়কে যাওয়ার একমাত্র রাস্তা। গত ৮০-৯০ বছর ধরে স্থানীয়রা ওই রাস্তাটি দিয়ে প্রধান সড়কে যাতায়াত করতো।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে খাজুরা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আতিয়ার রহমান বলেন, জমিটি স্কুলের। তাছাড়া দোকানে বসে থাকা লোকজন স্কুলের মেয়েদের টিজ করে। সেকারণে রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। স্কুলের অবয়ব বাড়াতে জহর আলী সাহেবের কাছে আমরা জমি চেয়েছিলাম। তাকে বলেছিলাম ৫০ লাখ টাকা নিয়ে জমিটি আমাদের দিয়ে দেন। তিনি দেননি। রাস্তার জায়গা স্কুলের, এ সংক্রান্ত কাগজপত্র এসিল্যান্ডকে দেওয়া হয়েছে।

বন্দবিলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সবদুল হোসেন খান বলেন, বিষয়টি ইউএনওকে বলেছি। সরকারি সার্ভেয়ার দিয়ে মেপে যদি দেখা যায় রাস্তার জায়গা স্কুলের, তবে ভবন ভেঙে দেওয়া হবে।

বাঘারপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) তানিয়া আফরোজ বলেন, জমির মালিকানা নিয়ে দুপক্ষের অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তে এসিল্যান্ডকে অবহিত করা হয়েছে। তিনি তদন্ত করে দু-এক দিনের মধ্যে রিপোর্ট দেবেন। রিপোর্ট পাওয়ার পরই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবু সুফিয়ান  বলেন, সামনের সপ্তাহে আমরা দুপক্ষকেই ডাকবো। সার্ভেয়ার পাঠানো হবে জমি পরিমাপের জন্য। তারপর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Loading...