সংবাদ শিরোনাম
মীরডাঙ্গীর ব্রীজটিই যেন গ্রামবাসির দুর্ভোগের একমাত্র কারণ! | তারেক এতো দূর্নীতি, অন্যায় ও মানুষ খুন করেছে তার সাহস নাই বাংলাদেশে আসার: কৃষিমন্ত্রী | ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ: ডিএনএ পরীক্ষায়ও মিলেছে মজনুর সম্পৃক্ততা | কুকরি মুকরিতে পর্যটকদের বাড়তি আনন্দ দিতে যোগ হয়েছে রংবেরঙের নৌকা | ভারতের পাটনায় বোরকা পরে কলেজে আসলে জরিমানা | লক্ষ্মীপুর ৫ম শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে ৭০বছরের বৃদ্ধ গ্রেফতার | সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে জাবি ছাত্রের অনশন | সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে রাজু ভাস্কর্যে ঢাবি শিক্ষার্থীর অবস্থান | ‘সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে বিএসএফ দুঃসাহস দেখাতে পারছে’ | শাহজাদপুরে ইয়াবা বিক্রেতা ও গরুচোরসহ ৭জন আটক |
  • আজ ১৩ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে মাছ ধরতে আসা ১৪ ভারতীয় আটক

৫:১৮ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশ জলসীমায় প্রবেশ করে মাছ শিকারের অভিযোগে একটি ট্রলারসহ ১৪ ভারতীয় জেলেকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) ভোর রাতে মোংলা সমুদ্র বন্দরের অদূরে বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটক জেলেদের কাছ থেকে এফবি মা আম্বিয়া-০২ নামে একটি ট্রলার এবং ট্রলারে থাকা ১ হাজার ২২০ কেজি বিভিন্ন প্রজাতির মাছসহ জাল ও দড়ি জব্দ করা হয়। আটক জেলেদের বাড়ি ভারতের দক্ষিণ-চব্বিশ পরগোনা জেলার বিভিন্ন এলাকায় বলে জানা গেছে।

কোস্ট গার্ডের গোয়েন্দা কর্মকর্তা (মোংলা সদর দপ্তর) আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, এফবি মা আম্বিয়া-০২ নামে একটি ফিসিং ট্রলার নিয়ে ভারতীয় জেলেরা বঙ্গোপসাগরে বাংলাদেশের জলসীমায় ঢুকে মাছ ধরার সময় ওই এলাকায় টহলরত কোস্ট গার্ড সদস্যরা তাদের আটক করে। পরে তাদের মোংলা থানায় হস্তান্তর করা হয়।

মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, আটকদের বিরুদ্ধে সামুদ্রিক মৎস্য অধ্যাদেশ ১৯৮৩’র ২২ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পরে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে একই অভিযোগে বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশ জলসীমা থেকে নৌ বাহিনী ১ অক্টোবর ১৫ জন, ৪ অক্টোবর ২৩ জন ও ১৪ অক্টোবর ১১ জন, ২২ অক্টোবর ১৪ জনকে এবং সর্বশেষ ১০ ডিসেম্বর কোস্টগার্ড ১৪ জন ভারতীয় জেলেকে আটক করে। এ নিয়ে অক্টোবর থেকে আজ পর্যন্ত ৭৭ জন ভারতীয় জেলে বাংলাদেশের আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে আটক হল।

Loading...