সংবাদ শিরোনাম
কৃষকের ১০ টাকার একাউন্ট খুলতে ব্যাংকে দিতে হয় ৫শ টাকা! | নোয়াখালীতে হোটেলে নিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১ | ইরানের হামলায় ৩৪ মার্কিন সেনা আহত | তুরস্কে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ১৮ | শীতার্ত ও মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে কম্বল বিতরণ করলেন এমপি সৈয়দা জাকিয়া নুর লিপি | রংপুরে জিহাদী বইসহ ৫ শিবিরকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ | লক্ষ্মীপুরে শ্রমিকলীগ ও তাঁতীলীগের দুই নেতার দ্বারা যুব মহিলা লীগের নেত্রীকে শ্লীলতাহানি | ইতালীর রোমে সড়ক দুর্ঘটনায় এক বাংলাদেশী নিহত | মসজিদের ভেতরেই মসজিদ কমিটি নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৫ | ‘মুজিববর্ষে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ১৪ হাজার বাড়ি নির্মাণ করে দেয়া হবে’ |
  • আজ ১২ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিএনপিকর্মী ভেবে পুলিশ সদস্যকে থাপ্পড় মারলেন ওসি!

১২:৪৫ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯ আলোচিত বাংলাদেশ
poli

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ বিএনপিরকর্মী ভেবে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ডিএসবি’র এক কনস্টেবলকে রাস্তায় থাপ্পড় মারলেন মৌলভীবাজার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর হোসেন। মারধরের শিকার ওই ডিএসবি সদস্যের নাম আবুল বাশার।

বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) বেলা ১১টার দিকে মৌলভীবাজার চৌমুহনায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার একটি ভিডিও ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন ও তার মুক্তির দাবিতে চৌমুহনা থেকে সকাল ১০টায় বিএনপির মিছিল হওয়ার কথা ছিল। সাড়ে ১০টার দিকে দায়িত্ব পালন করতে চৌমুহনা এলাকায় আসেন ডিএসবির সদস্য আবুল বাশার।

বেলা ১১টার দিকে বিএনপির ১৫-২০ জন নেতাকর্মী রাস্তায় জড়ো হয়। এ সময় ঘটে যায় অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাটি। মডেল থানার ওসি আলমগীর হোসেন ডিএসবির সদস্য আবুল বাশারকে পেছন দিক থেকে এসে বিএনপির কর্মী ভেবে থাপ্পড় মারেন ওসি। এ সময় বাশার নিজেকে ডিএসবি সদস্য বলে পরিচয় দিলে তাদের মধ্যে ঝগড়া বেধে যায়।

এ বিষয়ে ডিএসবির সদস্য আবুল বাশার বলেন, ‘সকালে আমি অফিসে আসার পর পুলিশ সুপারের নির্দেশে ডিআইও-১ আবু তাহেরের সঙ্গে গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ ও ছবি তুলতে চৌমুহনা পয়েন্টে যাই। আমি যখন ছবি তুলতে যাই, তখন ওসি আচমকা পেছন থেকে এসে ড্রেস পরিহিত অবস্থায়ই আমাকে আক্রমণ করেন। তবে আমি নিজেকে ডিএসবি সদস্য বলে পরিচয় দিলে তিনি থেমে যান।’

তবে ছত্রভঙ্গ করতে ঘটনাটি ঘটেছিল বলে স্বীকার করেছেন ওসি আলমগীর হোসেন। পরে অনুতপ্ত হয়ে তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে কথা বলা লজ্জার। যেহেতু গোয়েন্দা সংস্থার বাশারের আলাদা ড্রেস ছিল না, তাই ছত্রভঙ্গ করার সময়ে বিএনপি কর্মী মনে হয়েছে। পরে পরিচয় পেয়ে আমরা বিষয়টা মিটিয়ে নিয়েছি। তিনি বলেন, একটি ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। বিষয়টি যত প্রকাশ পাবে তত আমাদের জন্য লজ্জার।

Loading...