• আজ ১৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সুদের টাকা দিতে না পারায় গরু লুট, কৃষকের আত্মহত্যার চেষ্টা

৮:০৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১৪, ২০২০ দেশের খবর, বরিশাল

কৃষ্ণ কর্মকার, বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি- সুদের টাকা দিতে না পারায় পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায় এক কৃষকের গোয়ালের পাঁচটি গরু সুদ কারবারী লুট করে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে বিষয়টি মানতে না পেরে ওই কৃষক বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়ে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন বলে জানা গেছে। তিনি বর্তমানে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।

এমন ঘটনা ঘটেছে পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার মদনপুরা ইউনিয়নের চন্দ্রপাড়া গ্রামে। ওই কৃষকের নাম মো. জাহাঙ্গীর হোসেন মৃধা (৫০)। তিনি চন্দ্রপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয় বাসিন্দা ও ওই কৃষকের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এক বছর আছে চন্দ্রপাড়া গ্রামের কৃষক জাহাঙ্গীর হোসেন একই এলাকার সুদ কারবারী আবদুল মোতালেবের (৪৫) কাছ থেকে এক লাখ টাকা শতকরা ১৫ টাকা হারে সুদ নেন। জাহাঙ্গীর হোসেন বিভিন্ন সময় কিস্তিতে মোতালেবকে দেড় লাখ টাকা পরিশোধ করেন।

এরপরেও জাহাঙ্গীরের কাছে এক লাখ টাকা দাবি করে মোতালেব। ওই টাকা দিতে বিলম্ব হওয়ায় গত সোমবার ভোরে মোতালেব তার লোকজন নিয়ে জাহাঙ্গীরের গোয়াল ঘর থেকে পাঁচটি গরু নিয়ে যান। ওই সময় তার স্ত্রী নামজা বেগম (৪০) ও তার মা সামসুননেহার বেগম (৭০) বাঁধা দিলে তাঁকে অশালীন ভাষায় গালাগাল করেন। সেই ক্ষোভে জাহাঙ্গীর ঘরের দোতলায় উঠে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়।

ঘরের লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করান। জাহাঙ্গীরের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ওই দিনই বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে স্থানীয় লোকজনের চাপে ওই পাঁচটি গরু জাহাঙ্গীরের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয়।

জাহাঙ্গীরের স্ত্রী নাজমা বেগম বলেন, ‘আমাকে ও আমার শাশুড়িকে অশালীন ভাষায় গালাগাল ও অপমান করে পাঁচটি গরু লুট করে নিয়ে যাওয়ার ক্ষোভে ও অভিমানে আমার স্বামী আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। আমার স্বামীর কিছু হলে এর জন্য আবদুল মোতালেব দায়ী থাকবে।’

এ বিষয়ে আবদুল মোতালেবের মুঠোফোনে কল করলে বন্ধ পাওয়া যায়। বক্তব্য নেওয়ার জন্য মুঠোফোনে ক্ষুদে বার্তা পাঠালেও তিনি কল করেননি।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘এ বিষয়ে কেউ কোনো অভিযোগ করেননি। খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া নেওয়া হবে।’