• আজ ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু

১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, জানুয়ারি ১৭, ২০২০ ইসলাম
izre

ইসলাম ডেস্কঃ ফজরের পরপরই টঙ্গীর তুরাগ তীরে ভারতের মাওলানা চেরাগ আলীর আম-বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে দাওয়াতে তাবলিগের ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। রোববার দুপুরে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এবারের ইজতেমা।

আজ আনুষ্ঠানিকভাবে ইজতেমা শুরু হলেও বুধবার থেকেই শুরু হয়েছে বিশেষ বয়ান। মুসল্লিরাও ওইদিন থেকে আসতে শুরু করেছেন কহর দরিয়ার তীরে। বৃহস্পতিবার ছিল টুপি পরা মানুষের ময়দানমুখী স্রোত।

আজ এখানে জুমার নামাজে নামবে মুসল্লির ঢল। এতে ইমামতি করবেন বাংলাদেশের মাওলানা মোশারফ হোসেন। জুমার নামাজ ঘিরে এরই মাঝে আশপাশের এলাকা থেকে ধল বেঁধে আসতে শুরু করেছেন মুসল্লিরা।

ইজতেমার সার্বিক পরিস্থিতি প্রসঙ্গে দ্বিতীয় পর্বের সমন্বয়ক হাজী মুনির হোসেন জানান, বুধবার থেকে অনেক মুসল্লি ইজতেমা ময়দানে চলে আসায় বৃস্পতিবার বাদ মাগরিব প্রাক বয়ান করেন ভারতের মাওলানা শামীম। তার বয়ান বাংলায় তরজমা করেন মাওলানা জিয়া বিন কাসেম। এখনও সাধারণ মুসল্লিরাও ইজতেমা ময়দানে আসছেন। আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত তাদের এ আগমন অব্যাহত থাকবে।

বাদ জোহর বয়ান করেন ভুপালের মুরব্বি ইকবাল হাফিজ, তরজমা করেন মাওলানা মনির ইউছুফ। বাদ আসর বয়ান করেন বাংলাদেশের মাওলানা সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম। বাদ মাগরিব বয়ান করেন ভারতের মাওলানা শামীম, তা তরজমা করেন মাওলানা জিয়া বিন কাসেম। আজ বাদ ফজর মাওলানা চেরাগ আলীর বয়ান বাংলায় তরজমা করেন বাংলাদেশের মাওলানা আশরাফ আলী।

দ্বিতীয় পর্বের জিম্মাদার ইঞ্জিনিয়ার ওয়াসেফুল ইসলাম জানান, পরিস্থিতি বিবেচনায় ভারতের নিজামুদ্দিন মারকাজের শীর্ষ মুরব্বি মাওলানা সাদ আহমদ কান্ধলভি এ ইজতেমায় আসবেন না। তবে নিজামুদ্দিনের পক্ষ থেকে তাবলিগের শীর্ষ মুরব্বি ও আলেমসহ ৩২ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল এরই মধ্যে ময়দানে এসে পৌঁছেছে। তাদের তত্ত্বাবধানেই পরিচালিত হবে বিশ্ব ইজতেমা।

ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের বিনামূল্যে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে প্রথম পর্বের মতো এ পর্বেও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ, টঙ্গী সরকারি হাসপাতালসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান ইজতেমা ময়দানের উত্তর পার্শ্বে নিউ মন্নু কটন মিলের ভেতরে ক্যাম্প চালু রেখেছে। ইজতেমা উপলক্ষে বাংলাদেশ রেলওয়ে রোববার পর্যন্ত বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে। এছাড়া ঢাকা অভিমুখী সব ট্রেন টঙ্গী রেল স্টেশনে ৫ মিনিট বিরতি দেবে। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সংস্থাও (বিআরটিসি) বিশেষ বাস সার্ভিস চালু করেছে।

এ পর্বের ইজতেমায় অংশ নিতে সৌদি আরব, পাকিস্তান, ভারত, ইরাক, তুরস্ক থেকে শুরু করে এশিয়া ও আফ্রিকা থেকে ছুঁতে এসেছে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।

Loading...