• আজ ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিশ্বকে চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ: কৃষিমন্ত্রী

৬:১৪ অপরাহ্ণ | রবিবার, জানুয়ারি ১৯, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর

মো. সানোয়ার হোসেন, মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি- আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, সারা পৃথিবীকে আমরা চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছি আমরা বিদেশি সাহায্যের উপর নির্ভরশীল নই, বাংলাদেশ এখন দারিদ্র্যের নয় উন্নয়নের রোল মডেল।

রোববার (১৯ জানুয়ারী) দুপুরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার কদিম ধল্যা ড. আয়েশা রাজিয়া খোন্দকার স্কুল এন্ড কলেজে ১০ বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।

সুধী সমাবেশে স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও (সাবেক) সচিব ড. খোন্দকার শওকত হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

এসময় তিনি বলেন, একটি দেশে একটি জাতি সমৃদ্ধশালী হওয়ার জন্য প্রযুক্তিগত শিক্ষার উপর ভিত্তি করে জাতির উন্নয়ন হবে। গত ১১ বছরে বাংলাদেশে সকল ক্ষেত্রে দৃশ্যমান উন্নয়ন হয়েছে যার ফলে ব্যাপক সাফল্য এসেছে। ৩০-৪০ হাজার কোটি ডলার ব্যয় করে নির্মাণ হচ্ছে পদ্মা সেতু। আজ সেই পদ্মা সেতু পৃথিবীর বুকে দৃশ্যমান।

মন্ত্রী বলেন, আসন্ন ঢাকা সিটি নির্বাচনের আগেই বিরোধী দলের নেতারা বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করার পায়তারা করছে। কিন্তু ভোট দেয়ার মালিক দেশের জনগণ। জনগণ যাকে ভোট দিবে সেই নির্বাচিত হবে। ইভিএমের মাধ্যমেই ভোট হবে এবং এ নির্বাচন সুষ্ঠু হবে এমন আশা ব্যক্ত করেন তিনি। আমরা উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে চাই।

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ করে তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তুমি এমন কিছু করো যা ইতিহাসের পাতায় লেখা থাকে। নিজের লক্ষকে অটুট রেখে ভালোভাবে লেখাপড়া করে জাতিকে আরও শক্তিশালী করতে হবে আগামী প্রজন্মের। সকলে তার স্ব স্ব স্থান থেকে ন্যায়-নিষ্ঠাবান হয়ে সততার থাকে দায়িত্ব পালন করার আহ্বান জানান।

সে সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টাঙ্গাইল-০৭ মির্জাপুর আসনের এমপি. বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. একাব্বর হোসেন, টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আহাদুজ্জামান মিয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল মালেক, মির্জাপুর পৌর মেয়র সাহাদৎ হোসেন সুমন, উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর শরীফ মাহমুদ, সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. মঈনুল হক, থানা অফিসার ইনচার্জ মো. সায়েদুর রহমান, অধ্যক্ষ মৃণাল কান্তি ঘোষ প্রমুখ।

এর আগে বিদ্যালয়ে পৌছানোর পর অভিবাদন মঞ্চ থেকে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন মন্ত্রী। পরে শিক্ষার্থীরা কুচকাওয়াজ প্রদর্শন করেন এবং মনোজ্ঞ ডিসপ্লে উপভোগ করেন উপস্থিত সকলে।

অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের ১০ বর্ষপূর্তি উপলক্ষে একটি স্মরণিকা প্রকাশ করা হয়। আগত প্রধান অতিথিকে সম্মাননা স্মারক ক্রেসড প্রদান করা হয়।

Loading...