• আজ ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

প্রচার পেতেই পুলিশের ওপর হামলা করে জঙ্গিরা

২:২৭ অপরাহ্ণ | সোমবার, জানুয়ারি ২০, ২০২০ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে দফায় দফায় পুলিশের ওপর বোমা হামলার ঘটনায় নব্য জেএমবির দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিসিটিসি)। হামলার মূল উদ্দেশ্য আতঙ্ক তৈরি করা ও প্রচার পাওয়া ছিল বলে পুলিশ জানায়।

সোমবার (২০ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন সিটিটিসির প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম। রোববার রাতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে রাজধানীর শনির আখড়া থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

মনিরুল ইসলাম বলেন, জঙ্গিরা সন্ত্রাসী কার্যক্রমের মাধ্যমে চায় প্রচার। পুলিশের ওপর হামলা করলে প্রচারটা বেশি পাওয়া যায়। তাছাড়া পুলিশের ওপর হামলা করলে জনমনে ভয়-ভীতিটা বেশি সৃষ্টি হবে। কারণ পুলিশ জনগণকে নিরাপত্তা দেবে। সেখানে পুলিশেই যদি অরক্ষিত হয় তাহলে জনগণকে কীভাবে নিরাপত্তা দেবে। এই জায়গায় তারা পুলিশের ওপর হামলার টার্গেট করেছিল। তাছাড়া হলি আর্টিসান হামলার পরে পুলিশের যে সক্ষমতা বেড়েছে, জঙ্গিদের যে নেটওয়ার্কিং গড়ে উঠেছিল তা বিপর্যস্ত-দুর্বল করে দেয়ার কাজটি পুলিশই করেছিল। সেজন্য তারা পুলিশকেই টার্গেট করেছে।

তিনি আরও বলেন, বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে গুলিস্তান, মালিবাগ, সাইন্সল্যাবসহ ঢাকা শহরের ৫টি স্থানে পুলিশের উপর বোমা হামলার মূল পরিকল্পনাকারীসহ নব্য জেএমবির ২ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

গ্রেফতার হওয়া দুই জন হলেন মো. জামাল উদ্দিন রফিক ও মো. আনোয়ার হোসেন। গ্রেফতারকালে তাদের কাছ থেকে চারটি মোবাইল ফোন ও একটি ল্যাপটপ জব্দ করা হয়।

মনিরুল বলেন, গত বছর যে হামলাগুলো হয়েছে তার প্রত্যেকটির মূলপরিকল্পনাকারী রফিক। তিনি নিজে চারটিতে সরাসরি অংশ নেন। আর আনোয়ার সবগুলোতে নেপথ্যে থেকে সহযোগিতা করেন এবং একটিতে সরাসরি অংশ নেন।

Loading...