• আজ ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘প্রয়োজনে ভোট পিছিয়ে ব্যালটে ভোট নিন’- মির্জা ফখরুল

৯:৩৫ অপরাহ্ণ | বুধবার, জানুয়ারি ২২, ২০২০ ঢাকা
fok

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর। আরেকটি ১ ফেব্রুয়ারি আসছে, যে পদ্ধতিতে ঢাকার নগরবাসীর ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়া হবে। আমরা তীব্রভাবে আপত্তি জানিয়েছি। এখনো বলছি, এই ইভিএম ব্যবহার বন্ধ রাখুন এবং প্রয়োজনে ভোট পিছিয়ে দিয়ে ব্যালটে ভোট নেওয়ার ব্যবস্থা করুন।

বুধবার (২২ জানুয়ারি) বিকেলে গুলশানে হোটেল লেকসোরে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স (এ্যাব)-এর উদ্যোগে ‘প্রশ্নবিদ্ধ ইভিএমের কারিগরি অপব্যবহারের মাধ্যমে নির্বাচনী ফলাফল কারচুপির সম্ভাব্য সুযোগ’ শীর্ষক সেমিনারে বিএনপি মহাসচিব এ দাবি জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, আসুন, আজকে সবাই জনগণের কাছে বলি যে, তারা অত্যন্ত জোরে তাদের ভয়েস, তাদের কণ্ঠকে সোচ্চার করুন যে, আমরা ইভিএম মানি না। ইভিএম কখনোই জনগণের সঠিক রায়ের প্রতিফলন ঘটাবে না। আমরা এই ইভিএম প্রত্যাখ্যান করছি।

‘মেশিন ব্যবহৃত হয় মানুষের দ্বারা। মেশিনের পেছনে কারা থাকবেন সেটা একটা জরুরি প্রশ্ন। যেহেতু এই মেশিনের পেছনে বর্তমান নির্বাচন কমিশন আছেন এবং এই সরকার রয়েছে যারা পুরো নির্বাচন ব্যবস্থাটাকে পরিচালনা করছে তাদের ওপরে মানুষের কোনো আস্থা নেই। এবারকার দুই সিটি করপোরেশনের পুরো নির্বাচনটা ইভিএম দ্বারা ভোট গ্রহণ করা হবে। আমরা প্রথম থেকে এর আপত্তি জানিয়ে আসছি। নির্বাচন কমিশনেও আমাদের ডেলিগেশন গিয়েছিলো, তারা গিয়ে আপত্তি জানিয়ে এসেছেন।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, মঙ্গলবার আমাদের মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের ওপর সরকারি দলের একজন কাউন্সিলর প্রাকাশ্যে আঘাত করলেন, তার ওপর আক্রমণ চালালেন। দুঃখজনকভাবে শুধু না, দুর্ভাগ্যজনক ও লজ্জাজনকভাবে ওই দলের (আওয়ামী লীগ) মেয়র প্রার্থী বললেন, এটা তাদের দলের নিজস্ব প্রোবলেম।

‘ইভিএম একটা মাত্র ঘটনা, এটা মাত্র মেশিন। এরকম হাজারো মেশিন দিয়ে আমাদের অর্থনীতি ধ্বংস করে ফেলা হচ্ছে। আমাদের সমাজকে ধবংস করে ফেলা হচ্ছে। আমাদের পুরো রাষ্ট্রকে ধ্বংস করে ফেলা হচ্ছে।’

Loading...