• আজ ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পাকিস্তান সফরে টাইগারদের শুভকামনা জানালেন সাকিব

১০:০৪ অপরাহ্ণ | বুধবার, জানুয়ারি ২২, ২০২০ খেলা
sakib

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ আসন্ন পাকিস্তান সিরিজে বাংলাদেশ দলের জন্য শুভকামনা জানিয়ে সাকিব আল হাসান বলেছেন, ‘আমি আশা করি সবাই নিরাপদে পাকিস্তান ভ্রমণ করবে এবং সাফল্যের সাথে ফিরে আসবে। শ্রীলঙ্কা তাদের সাম্প্রতিক সফরে পাকিস্তানকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়েছে। বাংলাদেশ দলেরও পাকিস্তানে জয়ী হওয়া উচিত।’

বুধবার (২২ জানুয়ারি) ডেইলি স্টার প্রাঙ্গণে এ বামহাতি অলরাউন্ডার লাইফবয়ের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে গণমাধ্যমের সামনে কথা বলেন তিনি এবং বাংলাদেশ দল যাতে সফলভাবে সিরিজ সমাপ্ত করতে পারে সেজন্য শুভকামনা জানান।

ক্রিকেটে নিষিদ্ধ থাকায় ক্রিকেটেরে বাইরের জীবনযাপন নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন সাকিব। ক্রিকেটের বাইরের জীবন কাটানো নিয়ে সাকিব বলেন, ‘সবকিছু বাদ দিয়ে যেহেতু একটা কাজের সঙ্গে জড়িত ছিলাম, এখন যেহেতু কাজটা নেই, অন্য সব কাজ করার সুযোগ হচ্ছে। এর বাইরে অন্য কিছু আমি খুব একটা শেয়ার করতে চাই না। যদি ওরকম কোনও পরিস্থিতি আসে তখন যদি মনে হয় শেয়ার করবো। নয়তো এসব ব্যাপারে আমি স্বচ্ছন্দবোধ করব না।’

সাকিব নিষিদ্ধ হওয়ার পরও তার প্রতি ভক্তদের ভালোবাসা বিন্দুমাত্র কমেনি। এ বিষয়ে সাকিব বলেছেন, এমন ভালোবাসাই সাকিবকে দায়বদ্ধ করেছে, ‘বাংলাদেশে একটি কথা প্রচলিতও আছে জীবিত থাকতে মর্মটা বোঝা যায় না। আমার ক্ষেত্রে যেটা হয়েছে আমি জীবিত থাকতে মর্মটা বুঝতে পারছি। আমি খুশি, যেহেতু সবার ভালোবাসা পাচ্ছি। এখানে আমার দায়িত্বটা বেড়ে যায় স্বাভাবিকভাবে। আমি চেষ্টা করব এই দায়িত্বটা পালন করতে।’

খেলার বাইরে থাকলেও টিমমেট থেকে শুরু করে কোচদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ আছে সাকিবের। তিনি বলেন, ‘অনেকের সঙ্গেই আমার নিয়মিত কথা হয়। প্রধান কোচের সঙ্গে কথা তো হয়ই। সব সময় কোচিং স্টাফের সঙ্গে কথা হলে যে খেলা নিয়েই হবে এমন না, কিন্তু অনেকের সঙ্গেই যোগাযোগ আছে।’

উল্লেখ্য ৩ টি-২০, দুটি টেস্ট এবং একটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তবে সফর অনুষ্ঠিত হবে তিন ধাপে। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে ২৪, ২৫ এবং ২৭ জানুয়ারি টি-২০ ম্যাচ তিনটি অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় ধাপে ৭ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি রাওয়ালপিন্ডিতে প্রথম টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে।

এপ্রিলে একমাত্র ওয়ানডে এবং দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে ফের পাকিস্তান যাবে বাংলাদেশ। করাচিতে ওয়ানডে এবং দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। ৩ এপ্রিল করাচিতে একমাত্র ওয়ানডে ম্যাচ এবং পরে ৫-৯ এপ্রিল দ্বিতীয় টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে।

টি-২০ স্কোয়াড: মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, নাঈম শেখ, নাজমুল হোসেন শান্ত, লিটন দাস, মো. মিঠুন, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মেহেদী হাসান, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, মোস্তাফিজুর রহমান, শফিউল ইসলাম, আল-আমিন হোসেন, রুবেল হোসেন ও হাসান মাহমুদ।

Loading...