সংবাদ শিরোনাম
আরব আমিরাতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশি নাগরিক শনাক্ত | বিশ্বে ২২ কোটি ৮০ লাখ মানুষের প্রথম ভাষা বাংলা | বোন-কন্যাকে সঙ্গে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির সামনে প্রধানমন্ত্রীর সেলফি | ‘খালেদা জিয়া উর্দুতে পাস করলেও বাংলায় ফেল’- তথ্যমন্ত্রী | একুশে ফেব্রুয়ারিতে বাংলা ফন্ট উদ্বোধন করল জাতিসংঘ | শহীদ দিবসের ব্যানারে বীরশ্রেষ্ঠদের ছবি! | বাবাকে নিয়ে ইশরাকের আবেগঘন স্ট্যাটাস | অবশেষে বিটিআরসিকে এক হাজার কোটি টাকা দিতে রাজি হল গ্রামীণফোন | ‘ধনীদের উচিত গরীবদের বিয়ে করা’- ইন্দোনেশিয়ার সংস্কৃতিমন্ত্রী | ব্যস্ততার কারণে মাতৃভাষা দিবসে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নিলেন বশেমুরকৃবির তিন শিক্ষক |
  • আজ ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘এখান থেকে বের হও’ ইসরাইলি পুলিশকে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের ধমক

১:৪৫ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৩, ২০২০ আলোচিত
trud

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ইজরাইলে গিয়ে দেশটির নিরাপত্তারক্ষীদের একহাত নিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যেক্রো। বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) জেরুজালেমে ফ্রান্সের তৈরি ঐতিহাসিক চার্চ সেন্ট এন্যির সামনে এই ঘটনা ঘটে।

ফ্রান্সের সরকারি সূত্রের বরাতে তুরস্কের সংবাদসংস্থা আনাদোলু এজেন্সি জানায়, জেরুজালেমে সেন্ট এন চার্চের সকল দায়িত্ব ফ্রান্সের। নগরীর ওই অংশের সকল নিরাপত্তার বিষয়টি দেখভাল করে ফ্রান্স সরকার। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো যখন চার্চে প্রবেশ করতে যান সে সময় ইসরাইলের কিছু নিরাপত্তাকর্মীও চার্চে প্রবেশ করেন। সে সময় ইসরাইলের নিরাপত্তাকর্মীরা যে চার্চে অনধিকার প্রবেশ করছেন সে কথা স্মরণ করিয়ে দেন ইমানুয়েল ম্যাক্রো।

এ কথা বলতে গিয়ে তিনি ধৈর্য হারিয়ে ফেলেন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো। এদিকে ম্যাক্রো এমন আচরণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, ম্যাক্রো ইসরাইলের পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে চিৎকার করে বলছেন, ‘এখানে প্রত্যেকেই নিয়ম কানুন জানে। আপনি আমার সামনে যা করেছেন তা একেবারেই পছন্দ করছি না।’

এরপর ওই পুলিশ কর্মকর্তার দিকে আঙ্গুল উঁচিয়ে তিনি বলেন, ‘এখনই বের হয়ে যাও।’

এদিকে এমন ঘটনার পর ইসরাইলি পুলিশের পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে জানায়, চার্চে ইমানুয়েল ম্যাক্রোর নিরাপত্তার জন্যেই ওই নিরাপত্তাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

তারা আরও জানায়, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট চার্চ ত্যাগ করার পর ফরাসি সরকারি কর্মকর্তারা বিষয়টিকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখতে বলেছেন। তবে এ বিষয়ে ফরাসী সরকারি সূত্রে আর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

Loading...