সংবাদ শিরোনাম
আরব আমিরাতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশি নাগরিক শনাক্ত | বিশ্বে ২২ কোটি ৮০ লাখ মানুষের প্রথম ভাষা বাংলা | বোন-কন্যাকে সঙ্গে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির সামনে প্রধানমন্ত্রীর সেলফি | ‘খালেদা জিয়া উর্দুতে পাস করলেও বাংলায় ফেল’- তথ্যমন্ত্রী | একুশে ফেব্রুয়ারিতে বাংলা ফন্ট উদ্বোধন করল জাতিসংঘ | শহীদ দিবসের ব্যানারে বীরশ্রেষ্ঠদের ছবি! | বাবাকে নিয়ে ইশরাকের আবেগঘন স্ট্যাটাস | অবশেষে বিটিআরসিকে এক হাজার কোটি টাকা দিতে রাজি হল গ্রামীণফোন | ‘ধনীদের উচিত গরীবদের বিয়ে করা’- ইন্দোনেশিয়ার সংস্কৃতিমন্ত্রী | ব্যস্ততার কারণে মাতৃভাষা দিবসে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নিলেন বশেমুরকৃবির তিন শিক্ষক |
  • আজ ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে সহকর্মীকে হত্যার চেষ্টা!

৯:২১ অপরাহ্ণ | শনিবার, জানুয়ারি ২৫, ২০২০ দেশের খবর

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: ফেনীতে পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে মামুন নামের একজনকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে সহকর্মী শ্রমিক দেলোয়ার হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আহত মামুনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে (চমেক) পাঠানো হয়েছে।

শনিবার (২৫ জানুয়ারি) ফেনী-নোয়াখালী সড়কের কাশিমপুর স্টার লাইন ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের কারখানায় এ ঘটনা ঘটে। দু’জনই ওই কারখানার কর্মী।

পুলিশ জানায়, ফেনী ও নোয়াখালী সড়কের কাশিমপুর স্টার লাইন ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডে কারখানার কর্মচারী দেলেয়ার হোসেন কারখানার আরেক কর্মচারী মামুনকে পায়ুপথে বাতাস দিলে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। পরে দেলোয়ার নিজেই মামুনকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে।

এদিকে জিজ্ঞাসাবাদে বাতাস দেয়ার কথা স্বীকার কারায় পুলিশ দেলোয়ার হোসেনকে আটক করেছে। তবে হত্যার উদ্দেশ্যে নয়, দুষ্টুমির এক পর্যায়ে মামুনকে পরনের কাপড়ের উপর দিয়ে বাতাস দেয়, একইভাবে সেও নাকি মামুনকে বাতাস দিয়েছে বলে পুলিশকে জানায় দেলোয়ার।

কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন জানান, মামুনের পায়ুপথে প্রেসার দিয়ে বাতাস দেয়ার কারণে তার পেটের ভেতরের রেকটম ছিঁড়ে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্টার লাইন গ্রুপের পরিচালক মাইন উদ্দিন জানান, ব্যক্তিগত কোনো কারণে নাকি দুষ্টুমি করে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে তা এখন নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে এ ঘটনায় অভিযুক্ত শ্রমিককে আটক করে পুলিশে দেয়া হয়েছে।

Loading...