সংবাদ শিরোনাম
আরব আমিরাতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশি নাগরিক শনাক্ত | বিশ্বে ২২ কোটি ৮০ লাখ মানুষের প্রথম ভাষা বাংলা | বোন-কন্যাকে সঙ্গে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির সামনে প্রধানমন্ত্রীর সেলফি | ‘খালেদা জিয়া উর্দুতে পাস করলেও বাংলায় ফেল’- তথ্যমন্ত্রী | একুশে ফেব্রুয়ারিতে বাংলা ফন্ট উদ্বোধন করল জাতিসংঘ | শহীদ দিবসের ব্যানারে বীরশ্রেষ্ঠদের ছবি! | বাবাকে নিয়ে ইশরাকের আবেগঘন স্ট্যাটাস | অবশেষে বিটিআরসিকে এক হাজার কোটি টাকা দিতে রাজি হল গ্রামীণফোন | ‘ধনীদের উচিত গরীবদের বিয়ে করা’- ইন্দোনেশিয়ার সংস্কৃতিমন্ত্রী | ব্যস্ততার কারণে মাতৃভাষা দিবসে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নিলেন বশেমুরকৃবির তিন শিক্ষক |
  • আজ ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রংপুরে এক বছরে ২৮ জঙ্গিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব

১১:১৪ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, জানুয়ারি ২৬, ২০২০ দেশের খবর, রংপুর

সাইফুল ইসলাম মুকুল, রংপুর প্রতিনিধি- রংপুর বিভাগের আট জেলায় গত বছরের জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ২৮ জন জঙ্গিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৩। এছাড়া ১৯টি আগ্নেয়াস্ত্র, ২১ রাউন্ড গুলি, বিপুলসংখ্যক মাদকদ্রব্য, চাঞ্চল্যকর মামলার আসামিসহ শীর্ষ সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে।

র‌্যাব-১৩ এর হেড কোয়াটার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে ।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, গত বছরে রংপুর, লালমনিহাট, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও ও পঞ্চগড় জেলায় অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনের আঞ্চলিক পর্যায়ের শীর্ষ নেতাসহ ২৮ জঙ্গিকে গ্রেফতার করেছে। এদের মধ্যে আল্লার দলের ১৩ জন, জেএমবির ১২ জন ও উগ্রপন্থী জঙ্গি তিনজন রয়েছেন।

সে সময় উদ্ধার করা হয়েছে নয়টি বিদেশি পিস্তল, দেশের তৈরি দুইটি পিস্তল, ওয়ান শুটার গান সাতটি, পাইপগান একটি ও ২১ রাউন্ড তাজা গুলি। এছাড়াও বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক, জঙ্গিবাদী বই ও লিফলেট উদ্ধার করা হয়েছে।

এছাড়া মাদক উদ্ধারেও সাফল্য দেখিয়েছে র‌্যাব-১৩ রংপুরের সদস্যরা। তারা গত এক বছরে রংপুর বিভাগের আট জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে ৭০৯ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়েছে।

এ সময় উদ্ধার করা হয়েছে ৮৬ হাজার পাঁচশ ৫৪ পিস ইয়াবা, ১৯ হাজার দুইশ ৯৭ বোতল ফেনসিডিল, চারশ ২৫ কেজি গাঁজা, পাঁচশ ৫৮ গ্রাম হেরোইন, বিদেশি বিয়ার চারশ ৮ ক্যান, বিদেশি মদ একশ এক বোতল, চোলাই মদ দুই হাজার ১৬ লিটার ও নেশা জাতীয় ইনজেকশন আট হাজার তিনশ ৫৫ পিস।

র‌্যাব গত বছরে রংপুর বিভাগে চাঞ্চল্যকর হত্যা ও ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত ১৭ জনকে গ্রেফতার করে আইনের কাছে সোপর্দ করেছে। এই চাঞ্চল্যকর হত্যা ও ধর্ষণর মামলাগুলো হচ্ছে রংপুরে স্কুলছাত্র রশীদ হত্যাকা-, নগরীর বাহারকাছনায় দুই সন্তানসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হত্যাকা-, দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলায় মেহেদী হাসান হত্যাকা- ও রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর দুই তরুণী গণধর্ষণ। এসব ঘটনায় র‌্যাব বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এর প্রধান আসামিদের গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করেছে।

গত এক বছরে রংপুরের শীর্ষ সন্ত্রাসী মেরিল সুমন, কুড়িগ্রামের শীর্ষ সন্ত্রাসী আবু তালেব ও রংপুরের হেলমেট বিল্লাকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৩। এসব সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি বিদেশি রিভলবার এবং একটি ওয়ান শুটার ও গুলি উদ্ধার করা হয়। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি দুর্যোগে মোকাবিলা ও অসহায় মানুষের পাশে থেকে তাদের মুখে হাসি ফুটিয়েছে র‌্যাব-১৩।

মানবিক সহায়তার অংশ হিসেবে গত বছরের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ পানি বন্দি মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে খাদ্য সহায়তা নিয়ে। সম্প্রতি গাইবান্ধার রামচন্দ্রপুরে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী প্রায় পাঁচ শতাধিক প্রতিবন্ধী শিশু ও ছিন্নমূল শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র হিসেবে জ্যাকেট ও কম্বল বিতরণ করেছে। একইভাবে রংপুরেও শীতবস্ত্র ও কম্বল বিতরণ করা হয়েছে।

র‌্যাব-১৩ এর অধিনায়ক অফিসার রেজা আহামেদ জানান, সবার সহযোগীতা নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। অন্যায়ের সঙ্গে যারা জড়িত থাকবে আমরা তাদের গ্রেফতার করে আইনের কাছে সোপর্দ করব।

Loading...