• আজ ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পদ্মা সেতু প্রকল্পে নজরদারিতে ৩৫ চীনা কর্মী

১:৫৬ অপরাহ্ণ | বুধবার, জানুয়ারি ২৯, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- চীনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ছড়ানোর প্রেক্ষাপটে পদ্মা সেতু প্রকল্পে কর্মরত দেশটির ৩৫ কর্মীকে নজরদারিতে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

করোনাভাইরাসের বিস্তারের মধ্যে গত ১৮ জানুয়ারির পর এসব চীনা কর্মী ছুটি কাটিয়ে কাজে যোগ দিয়েছিলেন।

বুধবার সচিবালয়ে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদেরের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল চীনে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পরার পর পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ ব্যাহত হবে কিনা।

জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, “পদ্মা সেতুতে এক হাজারের মত চীনা শ্রমিক বা কর্মী কাজ করে। এদের মধ্যে দেড়শ জন শিফটিং ছুটিতে থাকে। এতে আমাদের কর্মকাণ্ড পরিচালনায় বা পদ্মা সেতু নির্মাণকাজে অসুবিধার সৃষ্টি হয় না।”

মন্ত্রী বলেন, ‘এ মাসের ১৮ তারিখ থেকে যারা আসছে তাদের ব্যাপারে আমাদের নজরদারি আছে এবং সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছি। ৩৫ জনের মতো এসেছে, ১৪ দিন নিয়ম অনুযায়ী তাদেরকে কর্মকাণ্ডের বাইরে রাখা হচ্ছে। আমাদের কর্মকাণ্ড কোনোভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে না।’

এরআগে গতকাল মঙ্গলবার পদ্মা সেতু প্রকল্পে কর্মরত চীনা প্রকৌশলী ও শ্রমিকদের দেশ ত্যাগ ও দেশে ফেরার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে সেতু কর্তৃপক্ষ। পদ্মা সেতু প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রকল্প ব্যবস্থাপক দেওয়ান আবদুল কাদের এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

কর্তৃপক্ষ জানায়, যেসব প্রকৌশলী ও শ্রমিক ছুটি কাটাতে নিজ দেশে গেছেন তাদের পুনরায় বাংলাদেশে আসা ও যেসব প্রকৌশলী ও শ্রমিক বর্তমানে কর্মরত আছেন তাদের দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে।

তবে এখন পর্যন্ত পদ্মা সেতু প্রকল্পে কর্মরত কোনও দেশি-বিদেশি কর্মী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হননি বলে নিশ্চিত করেছেন পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষ। পদ্মা সেতু প্রকল্পের মোট ১১০০ জন চীনা কর্মী কর্মরত আছেন।

Loading...