সড়ক দুর্ঘটনা নয়, প্রেমে রাজি না হওয়ায় হত্যা করা হয় স্কুলছাত্রী জেরিনকে!

৩:৫৭ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ৩০, ২০২০ দেশের খবর, বরিশাল

মঈনুল হাসান রতন, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি- হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রিচি উচ্চ বিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী মাদিনাতুল কোবরা জেরিনের লাশ কবর থেকে ১০ দিন পর উত্তোলন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে আদালতের নির্দেশে ময়না তদন্তের জন্য নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে লাশটি কবর থেকে তোলা হয়।

নিহত ছাত্রী জেরিন সদর উপজেলার ধল গ্রামের আব্দুল হাই মিয়ার কন্যা।

এর আগে গত ১৮ জানুয়ারি জেরিন স্কুলে যাওয়ার পথে পূর্বপরিকল্পিতভাবে তার বাড়ির সামনে একটি সিএনজি দাড় করিয়ে রাখে একই গ্রামের দিদার হোসেনের ছেলে জাকির হোসেন। পরে জেরিন বাড়ি থেকে বের স্কুলের উদ্দেশ্যে সিএনজিতে উঠে যায়। পথিমধ্যে জাকির হোসেন ও তার সহযোগী হৃদয় সিএনজিতে উঠে পরে। সিএনজিতে উঠার পর তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়।

এ সময় জাকির হোসেন জেরিনকে অপরহরণ করে নিয়ে যেতে চাইলে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। এক পর্যায়ে জেরিনকে সিএনজি থেকে ফেলে দেয় জাকির ও তার সহযোগিরা। পরে আহত অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৯ জানুয়ারি ভোররাতে সে মারা যায়।

বিষয়টি জানার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত জাকির হোসেন আটক করলে সে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়।

হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুক আলী লাশ উত্তোলনের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, স্কুল ছাত্রী জেরিন মৃত্যুর পর প্রথমে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছে মনে করে লাশ দাফন করা হয়। পরবর্তীতে পুলিশের তদন্তের বেড়িয়ে আসে ভিন্ন কাহিনি।

“এটি সড়ক দুর্ঘটনা নয়, প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় তাকে সিএনজি (অটোরিক্সা) থেকে ফেলে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। তাই আদালতের নির্দেশে ময়না তদন্তের জন্য তার লাশ তোলা হয়েছে।”