করোনা ভাইরাস: বেনাপোলে ভারতীয় ট্রাকচালক-হেলপারদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে না

১০:২৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২০ খুলনা
truk

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্টে ভারত থেকে আসা পাসপোর্ট যাত্রীদের করোনাভাইরাসের পরীক্ষা করা হলেও বেনাপোল বন্দরে পণ্যবাহী ভারতীয় ট্রাকের চালক ও হেলপারদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে না। ভারতেও এই ভাইরাস আক্রান্তের খবরের পর থেকে তাদের মাধ্যমে দেশে এই ভাইরাস আসার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন অনেকে।

তবে, প্রয়োজন হলে তাদেরও চেকআপের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান বেনাপোল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. বিচিত্র মল্লিক।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে গড়ে প্রতিদিন ৭০০০-৮০০০ পাসপোর্ট যাত্রী যাতায়াত করেন। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে একটি মেডিক্যাল টিম কাজ করছে সার্বক্ষনিক। এছাড়া সচেতনতামূলক পরামর্শও দেওয়া হচ্ছে।

কিন্তু এই বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে গড়ে প্রতিদিন ৫০০-৬০০ পন্যবোঝাই ট্রাক দেশে প্রবেশ করছে। যাতে চালক ও সহকারী মিলিয়ে ১০০০-১২০০ মানুষ দেশে প্রবেশ করে আবার ভারতে ফিরে যায়। তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার কোনও ব্যবস্থা নেই।

এদিকে, ভারতীয় ট্রাক চালক কার্তিক দাস বলেন, ট্রাক নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশের পরও স্বাস্থ্য পরীক্ষার ব্যবস্থা নেই। এমনকি ভারতেও কোন চেকআপের ব্যবস্থা নেই।

বেনাপোল চেকপোস্টে কর্মরত স্বাস্থ্য বিভাগ গত ১৪ দিনে মোট ৫ হাজার ৫৩৬ জন বিদেশী নাগরিকের স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন করেছেন।

বেনাপোল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. বিচিত্র মল্লিক জানান, সরকার ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশনায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধে চেকপোস্টে মেডিক্যাল টিম কাজ করছে। যাত্রী প্রবেশের সময়সীমা পর্যন্ত মেডিকেল টিম কাজ করে। এই স্থলবন্দর দিয়ে বিশেষ করে চীন থেকে পাসপোর্টযাত্রীদের আসার সম্ভাবনা থাকায় তাদের চেকআপ করা হয়। ভারতীয় পণ্যবাহী ট্রাকের চালক ও সহকারীরা পরীক্ষা-নিরীক্ষার বাইরে রয়েছেন। তবে প্রয়োজন হলে ভারতীয় এইসব ট্রাকচালক ও সহকারীদের এই কার্যক্রমের আওতায় আনা হবে।

বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক আব্দুল জলিল বলেন, ভারতীয় ট্রাক চালকদের বাংলাদেশে প্রবেশের আগে যাতে স্বাস্থ্য পরীক্ষা
করা হয় তার জন্য দ্রুত নির্দেশনা দেওয়া হবে।