• আজ ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

যশোরে ২ঘের ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধের ঘটনায় ইউপি সদস্যসহ আটক ৬, অস্ত্র গুলি উদ্ধার

৬:৫১ অপরাহ্ণ | বুধবার, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২০ খুলনা
bonduk

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ যশোরের মণিরামপুর থানার ওসির নেতৃত্বে ও ডিবি পুলিশের সহযোগিতায় অভিযান চালিয়ে ৩টি আগ্নেয়াস্ত্র ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। দুই ঘের ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধের ঘটনায় সোমবার গভীর রাতে আটক এক ইউপি সদস্যসহ ৬ জনের স্বীকারোক্তি মোতাবেক এ অস্ত্রগুলি উদ্ধার হয়।

আটককৃতরা হলো উপজেলার কুমারসীমা গ্রামের মৃত জনার্ধন সরকারে ছেলে স্থানীয় ইউপি সদস্য দেবু সরকার (৩৫), পাঁচবাড়িয়া গ্রামের তপন মল্লিকের ছেলে সুরঞ্জিত মল্লিক (২৫), ভোমরদাহ গ্রামের কাইয়ুম গাজীর ছেলে মাসুদ গাজী (২৪), সুবলকাটি গ্রামের সুন্নত সরকারের ছেলে জনি সরকার (২৪), মোতালেব হোসেনের ছেলে জিকু হোসেন (২৫) এবং একই গ্রামের আজহার আলীর ছেলে আল মামুন (২৫)।

জানা যায়, গত শুক্রবার রাত দু’টার দিকে সুবলডাঙ্গার ঘের পাড়ে ঘুমন্ত অবস্থায় দুর্বৃত্তদের ছোঁড়া গুলিতে উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের আবু হোসেনের ছেলে মনিরুল ইসলাম মনির (৩৮) এবং একই গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে জাহিদুল ইসলাম (৩০) গুলিবিবদ্ধ হন। এ ঘটনায় মনিরুল ইসলামের ভাই সিকদার হোসেন মোল্যা মণিরামপুর থানায় ৬/৭ জন অজ্ঞাতানামাদের আসামি করে থানায় মামলা করেন। যার মামলা নং ০৯ এবং মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার দায়িত্ব দেয়া হয় থানার এসআই তপন কুমার সিংহ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম পিপিএম জানান, বিলে ঘের’র বিরোধ নিয়ে দুই ঘের ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধের ঘটনায় তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে জড়িতদের সনাক্ত করতে মাঠে নামেন তারা। মণিরামপুর থানা ও ডিবি পুলিশের যৌথ অভিযানে সোমবার রাত ১টার দিকে ইউপি সদস্য দেবু সরকারকে আটক করা হয়। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ওই রাতেই বাকীদের আটক করা হয়।

ভোররাতে দেবু সরকারসহ আটকৃতদের নিয়ে অস্ত্র অভিযানে নামে পুলিশ। দেবু সরকারের স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার বাড়ির সামনে বিচালি (খড়) গাদা থেকে ১টি ওয়ান শুটারগান ও ২টি শাটারগান এবং ৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় অস্ত্র আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে।