‘জিয়া-খালেদার ভাঙা সংসার জোড়া দেন বঙ্গবন্ধু’

৪:৫৪ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২০ সিলেট
unnamed

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এমপি বলেছেন, নারীদের যথাযথ সম্মানের জায়গায় নিয়ে যেতে প্রথম এ দেশে বঙ্গবন্ধুই উদ্যোগি হন। আর তার সুকন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীর ক্ষমতায়নে রাখছেন অভূতপূর্ব অবদান। পিতা হারানো সকল নারীর পিতা হচ্ছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। খালেদা জিয়া ও জিয়াউর রহমানে বিয়েও ভেঙে গিয়েছিলো। সে বিষয়ও সমাধান করে দেন বঙ্গবন্ধু।

বৃহস্পতিবার সকালে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ও বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়, সিলেটের আয়োজনে সিলেট বিভাগীয় পর্যায়ে নির্বাচিত শ্রেষ্ঠ জয়িতাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে ‘তোমরাই বাংলাদেশের বাতিঘর’ প্রতিপাদ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য তৃণমূলের নারীদের সম্মাননা দেয়া হয়।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালের সংবিধানে নারীদের সম অধিকারের নিশ্চয়তা প্রদান করেছেন। মুক্তিযুদ্ধে নির্যাতিত নারীদের পুনর্বাসন করার জন্য নারী পুনর্বাসন বোর্ড গঠন করেছিলেন। নির্যাতিত নারীদের চিকিৎসার জন্য ভারত, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, জাপানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে চিকিৎসক এনে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছিলেন তিনি।’

সিলেট বিভাগীয় কমিশনার এনডিসি মো. মশিউর রহমানের সভাপতিত্বে সিলেট জেলা কালচারাল অফিসের অসিত বরণ দাস গুপ্ত ওমহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের শিশু সুরক্ষা কর্মকর্তা প্রিয়াংকা দাস রায়ের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য শামীমা আক্তার খানম ও সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন, সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দা জয়বুনেচ্ছা হক, কাজী রওশন আক্তার, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর এবং পারভীন আকতার।

Loading...