আবারো ৩ দিনের রিমান্ডে শিবির ক্যাডার সরওয়ার

৪:২৭ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০ চট্টগ্রাম
sar

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ অস্ত্র মামলায় সাজাপ্রাপ্ত শিবির ক্যাডার মো. সরওয়ার প্রকাশ বাবলাকে চাঁদাবাজি মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ দিনের রিমান্ড আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) অতিরিক্ত মহানগর হাকিম মহিউদ্দিন মুরাদের আদালত এই আদেশ দেন।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাবুদ্দীন আহমেদ বলেন, সরওয়ারকে পুলিশ সাতদিনের রিমান্ডে চেয়েছিল। আদালত শুনানি শেষে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে ৮ ফেব্রুয়ারি কাতার থেকে দেশে এলেই সরওয়ার ঢাকায় বিমানবন্দর থানা পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়। ওই দিন রাতে তাকে বায়েজিদ থানায় হস্তান্তর করা হয়। ৯ ফেব্রুয়ারি ভোর রাতে বায়েজিদের খোন্দকারাবাদ কালু মুন্সীর বাড়ির আবদুল কাদেরের বাড়ির উত্তর পাশে মাটির নিচে বিশেষ কৌশলে লুকানো একটি একে ২২ রাইফেল, ৩০ রাউন্ড গুলি, ২ টি এলজি ও ৪ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করেছে বলে জানায় পুলিশ।

অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় সাত দিনের রিমান্ড চাইলে আদালত এক দিনের রিমান্ড আদেশ দিয়েছিল। পুলিশ সওরয়ারকে ১১ ফেব্রুয়ারি কারাগার থেকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ১২ ফেব্রুয়ারি আদালতে সোপর্দ করলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

সরওয়ার দুর্ধর্ষ শিবির ক্যাডার সাজ্জাদ আলীর অপর সহযোগী ম্যাক্সনসহ ২০১১ সালের ৪ জুলাই রাতে ম্যাক্সনের শ্বশুরবাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া সীমান্তের সিঙ্গার বিল থেকে আটক হয়েছিল। তাদের দেওয়া তথ্যে একে-৪৭ রাইফেলসহ ৫টি আগ্নেয়াস্ত্র, একে-৪৭ রাইফেলের দুটি ম্যাগজিন ও ২৭ রাউন্ড গুলি এবং বিদেশি পিস্তলের একটি ম্যাগজিন ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছিল। আটক হয়েছিল তাদের আরেক সহযোগী মানিক প্রকাশ গিট্টু মানিক।

তদন্ত শেষে একই বছরের ৮ আগস্ট আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় পুলিশ। ২০১২ সালের ২৬ জানুয়ারি তিন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে এই মামলার বিচার শুরু হয়। ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য শেষে ২০১৬ সালের ৩১ আগস্ট ওই অস্ত্র মামলায় সরওয়ার ও ম্যাক্সনের উপস্থিতিতে তিন সন্ত্রাসীকে ২১ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছিলেন আদালত।

এক বছর জেল খাটার পর উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে তারা কারাগার থেকে ছাড়া পান। একপর্যায়ে দেশত্যাগ করেন। দেশত্যাগ করলেও তাদের গুরু সাজ্জাদ আলীর হয়ে চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কার্যক্রমের নেতৃত্ব দেন বিদেশ থেকেই।

থানা সূত্রে জানাগেছে, সরওয়ারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় অস্ত্র, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অভিযোগ ১৭টি মামলা রয়েছে।

Loading...