• আজ ২৪শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

প্রেমের টানে মুসলিম হয়ে বিয়ে, নবদম্পতি গ্রেফতার

৬:৪১ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০ খুলনা, দেশের খবর

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- মুসলিম ছেলে সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল লাবণীর। প্রেমকে সংসারে নিয়ে যেতে বাড়ি থেকে পালিয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে আযম নামের প্রেমিককে বিয়ে করেন তিনি। কিন্তু শেষে রক্ষা হয়নি তার, প্রেমিকসহ থানা হাজতে যেতে হয়েছে তাকে।

ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে মুসলমান যুবককে বিয়ে করার অপরাধে বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার নন্দলালপুর ইউনিয়নের সোন্দাহ বাগানপাড়ার একটি বাড়ি থেকে তাদের আটক করে পুলিশ।

গ্রেফতার নবদম্পতি হলেন- সাতক্ষীরার আশাশুনি থানার বিশ্বজিৎ বিশ্বাস ও লক্ষ্মী রানির মেয়ে লাবণী বিশ্বাস (২০) এবং একই এলাকার মফিজুল ইসলামের ছেলে গোলাম আযম (২৫)।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে লাবণী ও গোলাম আযমের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এরই মধ্যে উভয়ে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। দুই পরিবারের কথা চিন্তা করে প্রাপ্তবয়স্ক প্রেমিক-প্রেমিকা বাড়ি থেকে পালিয়ে ঢাকায় চলে যান।

গত ২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে লাবণী বিশ্বাস মুসলিম ধর্ম গ্রহণ করে আঁখি আক্তার নাম রাখেন। ৩ ফেব্রুয়ারি একই কোর্টে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে কোর্ট ম্যারেজ করেন তারা।

বিয়ের পর ঢাকায় থাকার ব্যবস্থা করতে না পেরে স্ত্রীকে নিয়ে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে আত্মীয়ের বাড়ি চলে আসেন আযম। উপজেলার নন্দলালপুর ইউপির সোন্দাহ বাগানপাড়া এলাকায় আত্মীয়ের বাড়িতে আশ্রয় নেন নবদম্পতি। ১২ ফেব্রুয়ারি বিষয়টি জানাজানি হলে নবদম্পতিকে পুলিশে সোপর্দ করেন ইউপি চেয়ারম্যান নওশের আলী।

কুমারখালী থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সাতক্ষীরার আশাশুনি থানায় মেয়ের বাবা মামলা করেছেন। তাই তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। আমাদের কিছুই করার নেই। তারা আমাদের হেফাজতে থাকবেন। আশাশুনি থানা পুলিশ এসে তাদের নিয়ে যাবে।