• আজ ২০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

খালেদা জিয়াকে নিয়ে কথা বলার সময় নেই: ওবায়দুল কাদের

১:৫৭ অপরাহ্ণ | বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- দুর্নীতি মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার প্যারোল নিয়ে প্রশ্ন করায় বিরক্ত হয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেছেন, ‘আমাদের অনেক কাজ রয়েছে, দেশের কাজ দলের কাজ। একজন খালেদা জিয়াকে নিয়ে বারবার প্রশ্নের জবাব দেব সেই সময় আমার হাতে নেই’।

বুধবার বেলা ১২ টার দিকে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ঢাকা বিভাগের নেতাদের সঙ্গে বিশেষ সভার শুরুতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বাংলাদেশ আজ বিশ্বসভায় মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে। দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আমাদের অনেক কর্মসূচি রয়েছে আমাদের অনেক কাজ রয়েছে। এখন খালেদা জিয়াকে নিয়ে বারবার আপনাদের প্রশ্নের জবাব দেবো সেই সময় আমাদের নেই। এ নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। এই প্রশ্ন দয়া করে আর করবেন না।’

খালেদা জিয়ার মামলাটি রাজনৈতিক নয় এমনটা জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, তিনি আদালতে আছেন, আদালতই ঠিক করবে। এটা কোনো রাজনৈতিক মামলা নয়, এটা দুর্নীতির মামলা। দুর্নীতির মামলা যেটা হবার সেটাই হবে। আদালত যেটা সিদ্ধান্ত নেয়ার নেবে, এটা আওয়ামী লীগের হাতে নেই, শেখ হাসিনার হাতে নেই। আমাদের কারো কাছে নেই, আমাদের এখতিয়ারে নেই। কাজেই এই প্রশ্নটা করে বারবার বিব্রত করবেন না। এই প্রশ্নের জবাব দেব না।

তিনি বলেন, বিরোধী দল প্রচার কর‌ছে নির্বাচ‌নে (সিটি নির্বাচন) কারচুপি হয়ে‌ছে। কিন্তু ইভিএমে কারচুপি বা জা‌লিয়া‌তির কোনো সুযোগ ছিল না। যদি এরকম সুযোগ থাকতো, তাহলে নির্বাচনে পার্সেন্ট ‌বে‌শি বা অস্থিতিশীলতা হ‌তো। যদি কোন প্রকার কারচুপি ও জালিয়াতির আশ্রয় নেয়া হতো তাহলে এই নির্বাচনের অবস্থা ভিন্নতর হতে পারতো।

‌তি‌নি ব‌লেন, ‌সি‌টি নির্বাচনে সমস্যাটা ছিল ভোটার উপ‌স্থি‌তি কমের জন্য, পরিবহন সংকট, তিন দিনের মতো ছু‌টি, অনেকের ছেলেমেয়েরা দেশের বাড়িতে এসএসসি পরীক্ষা থাকায় সেই সময় অভিভাবকরা তাদের ছেলে-মেয়েদের পরীক্ষার আগের সময়টা গ্রামের বাড়িতে কাটিয়েছেন। সব কিছুর কারণ আছে। তারপরও নির্বাচন নিয়ে সারা দুনিয়ায় তোলপাড় সৃষ্টি করার চেষ্টা হচ্ছিল। নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার অপচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে এবং নির্বাচনকে বিতর্কিত করার চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।

‌তি‌নি ব‌লেন, নির্বাচন নিয়ে দেশে-বিদেশে আমাদের বন্ধুরাষ্ট্র, পর্যবেক্ষক মহলে অপপ্রচার চালা‌নোর চেষ্টা করা হ‌য়ে‌ছে। তারা পা‌রে‌নি। সামনে আমাদের চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। ঢাকা মহানগরেও একটা নিবাচন আছে। ঢাকা-১০ আসন নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা থাক‌বে। তি‌নি ব‌লেন, এ নির্বাচ‌নী কার্যক্রম পরিচালনার জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে।