সংবাদ শিরোনাম
বেগমগঞ্জে আ’লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ: আহত ৯, গুলিবিদ্ধ ৪ | আম্পানে সুন্দরবনের ক্ষতি বুলবুলের চেয়ে ‘৩ গুণ’ বেশি | মাংস কিনতে গিয়ে এন‌জিও কর্মী নিখোঁজ, ঈদের দিন মিলল মরদেহ | আম্পানে ভেসে গেছে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল মানুষের ঈদ, এখন চলছে বেঁচে থাকার যুদ্ধ | আড়াই মাসে সর্বনিম্ন প্রাণহানি দেখলো ইতালি | সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানালেন খালেদা জিয়া | ঝড়-জলোচ্ছ্বাসের সম্ভাবনা, সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত | গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কিটের ট্রায়াল স্থগিত | গাজীপুরে ঈদের নামায এবং বাবার কবর জিয়ারত শেষে বাড়ি ফেরার পথে যুবক খুন | দাফনের টাকা নিয়েও তিস্তায় ভাসিয়ে দেওয়া হল করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃতের লাশ |
  • আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দিল্লি দাঙ্গাঃ তাহিরকে দল থেকে বহিস্কার করলেন কেজরিওয়াল

১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২০ আন্তর্জাতিক
kejriwal-5

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী (সিএএ) আইনকে কেন্দ্র করে উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের আক্রমণে ভারতের রাজধানী দিল্লিতে এ পর্যন্ত ৩৯ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এই সংঘর্ষে আম আদমি পার্টি’র (আপ) কেউ জড়িত থাকলে তাকে দ্বিগুণ শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে বলে জানিয়েছেন পার্টির প্রধান ও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

ভারতের দ্য ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো’র এক সদস্য অঙ্কিত শর্মা নিহতের ঘটনায় আম আদমি পার্টির নেতা তাহির হুসাইনের নাম উঠে এসেছে। এর পরেই আপের কাউন্সিলর তাহের হুসেনকে দল থেকে সাসপেন্ড করে দিয়েছেন কেজরিওয়াল। আইবি অফিসার অঙ্কিত শর্মা খুনের মামলায় বৃহস্পতিবার তাহিরের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে পুলিশ। তার পর পরই, সন্ধ্যায় আম আদমি পার্টির তরফে তাহির হুসেনকে দল থেকে সাসপেন্ড করার কথা ঘোষণা করা হয়।

জানা গেছে, আইবি অফিসার অঙ্কিত শর্মাকে খুনের অভিযোগে বৃহস্পতিবার তাহের হুসেনের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ (খুন) ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে দিল্লির দয়ালপুর থানায়। আপের অফিশিয়াল ট্যুইটারের মাধ্যমে জানানো হয়েছে, তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাহের হুসেনের বিরুদ্ধে সাসপেনশন জারি থাকবে।

শুধু খুন নয় ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দিল্লি পুলিশ। যার মধ্যে রাজধানীতে অগ্নিসংযোগের এবং হিংসায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগও রয়েছে।

এই ঘটনার মধ্যেই বৃহস্পতিবার সকালেই পেট্রোল বোমা ও পাথর ভর্তি প্যাকেট পাওয়া যায় তাহিরের বাড়ি থেকে। এমনকি একটি ভিডিও দেখা যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়, যেখানে ছাদে হাঁটছেন তাহির আর তাঁর সঙ্গীরা পাথর ছুঁড়ছে। এরপর ওই কেমিক্যাল ভর্তি প্যাকেট পাওয়া যায়। সংবাদমাধ্যমে দেখানো হয়েছে সেই ভিডিও। প্রয়াত অঙ্কিত শর্মার প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, শুধু এই হত্যার সঙ্গে তাহির জড়িয়ে আছেন, এমন নয়৷ যেদিন গোলমাল হয়, সেদিন তাহিরের বাড়িই ছিল দুষ্কৃতীদের ঘাঁটি৷ সেখান থেকে পেট্রল বোমা, ইঁট ছোড়া হয় বলেও অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা।

ঘটনার সমর্থনে একটি ভিডিও সংবাদ মাধ্যমে দিয়েছেন তাঁরা৷ সেটিতে একজনকে লাঠি হাতে দেখা যাচ্ছে৷ তবে সেটি তাহির হুসেন কি না, সেটাও স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে না৷

যদিও আপ নেতা এই সমস্ত কিছু অস্বীকার করেছেন। নিজেকে নির্দোষ বলেই জানিয়েছেন তাহের হুসেন। তিনি জানিয়েছেন, “আমাকে টার্গেট করা ভুল। আমি বা আমার পরিবারের কেউ এই ঘটনায় জড়িত নই।”