সংবাদ শিরোনাম
করোনায় বিশ্বে প্রাণহানি ৬৪ হাজার ছাড়াল, আক্রান্ত ১২ লাখের বেশি | শাহজাদপুরে করোনা মোকাবেলায় জনপ্রতিনিধিরা নিস্ক্রিয়, আসছেনা সুফল | করোনা সংক্রমণ আতঙ্কের মধ্যেও চলছে ইয়াবা ব্যবসা! | দেবীগঞ্জে চিকিৎসকদের জন্য পিপিই দিলো ওয়ালটন | যুক্তরাজ্যে ৪৩১৩ জনের প্রাণ কেড়ে নিল করোনা | মৃত্যুপুরী ইতালিতে আরও ৬৮১ জনের মৃত্যু | রাজধানীর কারওয়ান বাজারের কলাপট্টিতে আগুন | করোনা মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর কর্মপরিকল্পনা ঘোষণা রোববার | ১১ই এপ্রিল পর্যন্ত পোশাক কারখানা বন্ধ রাখার আহ্বান বিজিএমইএ সভাপতির | শরীয়তপুরে জ্বর-মাথা ব্যথা নিয়ে এক নারীর মৃত্যু, ন‌ড়িয়ায় ক‌রোনা আক্রান্ত হ‌য়ে বৃ‌দ্ধের মৃত্যু |
  • আজ ২২শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ছিনতাইকারীর হেঁচকা টানে নারীর করুন মৃত্যু! মুহুর্তেই শেষ হলো একটি হাসিখুশি পরিবারের সব সুখ!

১২:৩৭ অপরাহ্ণ | শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০ অপরাধ
প্রতীকী ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- এক ছেলে এক মেয়েসহ হাসিখুশি ছোট্ট সুখি পরিবার কিবরিয়া-তারিন দম্পত্তির । স্বামী বেসরকারী একটি প্রতিষ্ঠানে চাকুরীরত আর স্ত্রী গৃহিণী । আজ শনিবার সকালে আত্মীয়ের বাসা থেকে নিজের বাসার দিকে সন্তানদের নিয়ে হাসিখুশিই ফিরছিলেন তারা। সামনের রিক্সায় মেয়ে সহ আর পেছনের রিক্সায় স্ত্রীসহ ছেলে। ঘুর্নাক্ষরেও ভাবতে পারেননি এমন আকস্মিকভাবে এলোমেলো হয়ে যাবে জীবনের সব অংক।

প্রকাশ্য দিবালোকে রাজধানীর মুগদায় ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে মর্মান্তিক মৃত্যুর শিকার হয়েছেন এক নারী। শনিবার সকাল রাজধানীর মুগদায় এ ঘটনা ঘটে। কয়েকজন ছিনতাইকারীরা রিকশায় থাকা ওই নারীর হাতব্যাগ ধরে আকস্মিক হেঁচকা টান দিলে তিনি রিকশা থেকে পড়ে যান। চোখের পলকেই ব্যগ নিয়ে মাইক্রোবাসে চেপে পালিয়ে যান ছিনতাকারীরা।পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ওই নারীর নাম তারিন বেগম লিপা (৪০)। তিনি সিলেটের কোতোয়ালি থানার মোল্লাপাড়ার শশীতলা এলাকার বাসিন্দা। তার স্বামীর নাম গোলাম কিবরিয়া। ২৬নং দক্ষিণ রাজার বাগ সবুজবাগে থাকতেন। এক ছেলে এক মেয়ের জননী ছিলেন তিনি।

মুগদা থানার এসআই আলী আহমেদ জানান, সকালে ছেলে মেয়ে ও স্বামীকে নিয়ে রাজারবাগ বাটপাড়া থেকে দুই রিকশায় করে কমলাপুরের দিকে ফিরছিলেন লিপা। দক্ষিণ মুগদা ইউনিক বাস কাউন্টারের সামনের রাস্তায় মাইক্রোবাসে থাকা কয়েকজন ছিনতাইকারী আকস্মিক তার ব্যাগ ধরে টান দেয়।

এ সময় তিনি রিকশা থেকে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন। প্রথমে তাকে মুগদা জেনারেল হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

লিপার স্বামী গোলাম কিবরিয়া সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, ছেলে ও মেয়েকে নিয়ে তারা রাজারবাগ আত্মীয়ের বাসায় বেড়াতে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে দুটি আলাদা রিকশায় করে ফিরছিলেন তারা।

তিনি জানান, স্ত্রী সঙ্গে ছেলেও রিকশায় ছিল। মাইক্রোবাসে থাকা ছিনতাইকারীরা তার স্ত্রীর ব্যাগ ধরে টান দিলে তিনি রাস্তায় পড়ে যান। ছিনতাইকারীরা ব্যাগটি নিয়ে পালিয়ে যায়। ব্যাগে একটি মোবাইল ফোন ও দুই হাজারের মতো টাকা ছিল।

এদিকে একটি সূত্র জানিয়েছে, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ৪২ জন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। এ ব্যাপারে দুপুরে ডিএমপির প্রেস ব্রিফিং সেন্টারে বিস্তারিত জানানো হবে।

Loading...