সংবাদ শিরোনাম
যুক্তরাজ্যে ৪৩১৩ জনের প্রাণ কেড়ে নিল করোনা | মৃত্যুপুরী ইতালিতে আরও ৬৮১ জনের মৃত্যু | রাজধানীর কারওয়ান বাজারের কলাপট্টিতে আগুন | করোনা মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর কর্মপরিকল্পনা ঘোষণা রোববার | ১১ই এপ্রিল পর্যন্ত পোশাক কারখানা বন্ধ রাখার আহ্বান বিজিএমইএ সভাপতির | শরীয়তপুরে জ্বর-মাথা ব্যথা নিয়ে এক নারীর মৃত্যু, ন‌ড়িয়ায় ক‌রোনা আক্রান্ত হ‌য়ে বৃ‌দ্ধের মৃত্যু | করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশকে ৮৫০ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক | সৈয়দপুরে জীবাণুনাশক স্প্রে করল সিএসআর উইন্ডো বাংলাদেশ | প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষের খাবারের ব্যবস্থা করলেন গাঙ্গুলী | করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬১ হাজার, আক্রান্ত সাড়ে ১১ লাখ |
  • আজ ২২শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ স্থগিত, নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

২:০৮ অপরাহ্ণ | শনিবার, ফেব্রুয়ারি ২৯, ২০২০ জাতীয়
bnp

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ দলীয় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজের প্রতিবাদে পূর্বঘোষিত নয়াপল্টনের বিক্ষোভ সমাবেশ অনুমতি না পাওয়ায় বাতিল করেছে বিএনপি। এর পরিবর্তে রোববার (০১ মার্চ) ঢাকা মহানগরের থানায় থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে দলটি।

একই সঙ্গে বিদ্যুৎ-ওয়াসার পানির দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে সোমবার ঢাকা মহানগরসহ সারাদেশে মানববন্ধনের আলাদা কর্মসূচি দিয়েছে বিএনপি।

শনিবার সকালে নয়া পল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী নতুন দুই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

রিজভী বলেন, “দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজের আদেশের প্রতিবাদে আজকে ঢাকার নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দুপুরে বিক্ষোভ সমাবেশের জন্য আমরা পুলিশের কাছে অনুমতি দিয়ে চিঠি দিয়েছিলাম।

“তারা কোনো জবাব দেয়নি। সকাল থেকে অফিসের সামনে পুলিশ অবস্থান নিয়ে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। নেতা-কর্মী কাউকে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না। পুলিশের বাধার প্রতিবাদে আমরা রোববার ঢাকা মহানগরের থানায় থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করব।”

এছাড়া বিদ্যুৎ ও ওয়াসার পানির দাম বৃদ্ধির গণবিরোধী সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আগামী সোমবার (২ মার্চ) ঢাকা মহানগরসহ সারা দেশে জেলা সদর ও মহানগরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হবে। ঢাকায় মানববন্ধন জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সকাল ১১টায় শুরু হয়ে ১২টা পর্যন্ত চলবে।

এর আগে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের বলেন, “এই স্বৈরতান্ত্রিক ও জনগণের ম্যান্ডেটবিহীন সরকার জনগণের সব অধিকার কেড়ে নিয়েছে।

“তারই ধারাবাহিকতায় তারা সমাবেশ করতে দিচ্ছে না, র‌্যালি করতে অনুমতি দেয় না। এটা এখন একটি গতানুগতিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। জনগণকে দমিয়ে রেখে এরা রাষ্ট্র পরিচালনা করতে চায়।”

খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এত অসুস্থ, তারপরেও তাকে জামিন দেয়া হচ্ছে না। ষড়যন্ত্রমূলকভাবে দেওয়া হচ্ছে না। আমরা চেষ্টা করছি, জনগণকে সংগঠিত করে দেশনেত্রীকে ফিরিয়ে আনবার জন্য।”

পুলিশের অনুমতি না পেলেও সমাবেশের ঘোষণা একবার বিএনপি দিয়েছিল। তা তুলে ধরলে ফখরুল বলেন, “আমরা চেষ্টা করছি আমাদের পক্ষে যতটুকু সম্ভব করার, স্পেসগুলোকে নিয়ে চেষ্টা করছি।”

সকাল সাড়ে ১১টায় ফখরুল নয়া পল্টনের কার্যালয়ে ঢোকার সময় ফটকের সামনেই দাঁড়িয়েছিল পুলিশ। বিএনপি মহাসচিব পুলিশকে ফটক ছেড়ে যেতে বলার পর তারা একটু দূরে সরে যায়। তারপরই সংবাদ সম্মেলনে আসেন রিজভী।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক, সহ-দফতর সম্পাদক মুনীর হোসেন, তাইফুল ইসলাম টিপু, ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত দফতর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী প্রমুখ।

Loading...