সংবাদ শিরোনাম
করোনায় ঢাকার সাবেক এমপি মকবুলের মৃত্যু | বরিশালে ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্তদের ঘর মেরামত করে দিলেন সেনাবাহিনী | এবার প্রবাসীদের বাড়িতে ঈদ উপহার পাঠালেন মাশরাফি | ইতালিতে ঈদুল ফিতর উদযাপন করলেন ২৫ লাখ মুসল্লি | করোনাকালে “এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট” হিসেবে দায়িত্ব পালনের গল্প | ঠাকুরগাঁওয়ে কর্মহীনদের ঈদ উপহার দিল সেনাবাহিনী | করোনা চিকিৎসায় ১৩টি হাসপাতালে রেমডেসিভির সরবরাহ শুরু | কৃষকদের ধান কেটে দেওয়ায় ছাত্রলীগকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন | জীবিকার স্বার্থে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চালু করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী | “পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সরকারি সহায়তা অব্যাহত থাকবে” |
  • আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে লিচু গাছগুলো মুকুলে মুকুলে ভরে গেছে

৭:৫৬ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, মার্চ ৬, ২০২০ সুখবর প্রতিদিন

শাহ্ আলম শাহী, স্টাফ রিপোর্টার,দিনাজপুরঃ দিনাজপুরে লিচুগাছগুলো এবার মুকুলে মুকুলে ভরে গেছে। মুকুলের সমারোহে তাই লিচু বাগানগুলোতে গেলবারের চেয়ে বেড়ে গেছে মৌমাছিদের আনাগোনা। বসে নেই মৌয়ালরা।

এবারে বাম্পার ফলনের আশা করছে দিনাজপুরের লিচু বাগানগুলোর মালিকরা।

দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে তারা আসা শুরু করেছে। মৌয়ালদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে উঠছে, দিনাজপুরের লিচু বাগানগুলো। বিশেষ করে বিরল উপজেলার মাধববাটি ও সদর উপজেলার মাসিমপুর গ্রাম তাদের অবস্থানটাই বেশি পরিলক্ষিত হচ্ছে।

এতে একদিকে যেমন মৌয়ালরা প্রচুর মধু সংগ্রহ করবেন তেমনি অন্যদিকে মৌমাছির দ্বারা পরাগায়ন হয়ে বাড়বে লিচুর ফলন। এমনটাই মন্তব্য করছেন,কৃষি বিশেষজ্ঞরা। কিন্তুু মধ্যস্বত্ব ভোগীদের হাতে জিম্মি এখানকার মধু উৎপাদন ও বিপণন ব্যবস্থা। ফলে মধুর ন্যায্যমূল্য না পেয়ে হতাশ হয়ে মধুচাষে আগ্রহ হারাচ্ছে মৌয়ালরা।

ধানের জেলা দিনাজপুরে এ বছর ৫ হাজার ৭’শ ৫০ হেক্টর জমিতে লিচু চাষের লক্ষমাত্রা নির্ধারন করা করেছে কৃষিবিভাগ। আর চাষাবাদ হয়েছে ৬ হাজার ৫’শ ৪৪ হেক্টর জমিতে। লিচুর ফলনের লক্ষ্য ধরা হয়েছে ২৯হাজার ৬’শ ৬২ মেট্রিক টন।

দিনাজপুরের সু-স্বাদু লিচু’র খ্যাতি রয়েছে দেশ ছাড়িয়ে বিদেশেও। আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে এবারো লিচুর ভালো ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। দিনাজপুর জেলায় সব উপজেলাতেই কম বেশি লিচু হলেও সদরের মাসিমপুর ও বিরল উপজেলার মাধববাটির লিচুর বিশেষ সুনাম রয়েছে।

মাদ্রাজি,বেদেনা-বোম্বাই-চায়না থ্রি, কাঠালিসহ বিভিন্ন জাতের লিচু উৎপাদন হয় এ জেলায়। বেদেনা লিচু দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানি হয়।

মৌসুমের শুরুতেই দিনাজপুরের লিচু গাছ গুলোতে লিচুর মুকুলে ভরে গেছে। বাগান পরিচর্যায় এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন,বাগান মলিক, লিচু চাষি ও মৌসুমি লিচু ব্যবসায়ীরা। লিচু গাছে পানি দেয়া,পোকা মাকড় দমনে চলছে স্পে করা এবং গাছের পরিচর্যা। বাগানগুলো ভরে উঠেছে, মৌ-মৌ গন্ধে।

দিনাজপুর কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর এর উপ-পরিচালক তৌহিদুল ইকবাল ‘সময়ের কন্ঠস্বরকে জানিয়েছেন, দিনাজপুর জেলায় এবার ৫ হাজার ৭’শ ৫০ হেক্টর জমিতে লিচু চাষের লক্ষমাত্রা নির্ধারন করা হয়। আর চাষাবাদ হয়েছে ৬ হাজার ৫’শ ৪৪ হেক্টর জমিতে। ফলনের দিক থেকে এবার লিচু উৎপাদনের পরিমান দাড়াবে ২৯ হাজার ৬’শ ৬২ মেট্রিক টন। যা গত বছরের তুলনায় অনেক বেশি।তারা লিচু চাষিদের পোকামাকড় দমনে পরামর্শ দিচ্ছেন।