খিলগাঁওয়ে দুই শিশুকে জবাই করে মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা

১২:২৮ অপরাহ্ণ | শনিবার, মার্চ ৭, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর, স্পট লাইট

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- রাজধানীর খিলগাঁও থানার গোড়ান এলাকার এক বাসা থেকে দুই শিশুর জবাই করা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (০৭ মার্চ) সকাল ১০টার দিকে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ।

খিলগাঁও থানা পুলিশ বলছে, দুই শিশুকে গলাকেটে হত্যার আগে আগুনেও পোড়ানো হয়েছে। পুলিশের ধারণা, মা বাচ্চা দুটিকে হত্যা করে নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে।

খিলগাঁও থানার ওসি মশিউর রহমান বলেন, শুক্রবার (৬ মার্চ) রাতের যেকোন সময় ওই মা দুই শিশুকে গলা কেটে হত্যা করেন। পরে শিশুদের মৃতদেহ পুড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। এসময় তাকে হাতে চাকু নিয়ে দৌড়াদৌড়ি করতে দেখেন বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

দুই শিশুর মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. বাচ্চু মিয়া জানান, নিহত দুই শিশুর নাম মেহজাবিন আল্ভী (১১) ও জান্নাতুল ফেরদৌস (৬)। আর মায়ের নাম আক্তারুন্নেসা পপি (৩৫)। দুই শিশুকে হত্যা করে মা নিজেও গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এতে তার শরীরের ১৮ শতাংশ পুড়ে গেছে। ঢামেক বার্ন ইউনিটে পুলিশ পাহারায় তার চিকিৎসা চলছে।

পপির বাবা আবু তালেব মিয়া বলেন, পপির স্বামীর নাম মোজাম্মেল হক বিপ্লব। সে মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরে ইলেকট্রিক পণ্যের ব্যবসা করে। সপ্তায় একদিন আসে ঢাকায়।

তিনি বলেন, বিয়ের পর ৯ বছর আমার বাসায় থেকেছে পপি। স্বামী মুন্সিগঞ্জ থেকে প্রতি সপ্তায় আসত। তবে গত ২ বছর থেকে আলাদা বাসায় থাকা শুরু করে পপি। জানতে পারি, গত কয়েকমাস ধরে স্বামী কোন টাকা পয়সা দিত না। সন্তান ভরণপোষণের জন্য কোন খরচ করত না। এ নিয়ে মানসিক চাপ থেকে এ ঘটনা ঘটাতে পারে পপি।

এদিকে পপির ভাতিজা অনিক জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে ফুফি (পপি) দুই শিশুকে জবাই করে নিজেই আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।