সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ৫২৭৫ কোরআন খতম করালেন শামীম ওসমান

৯:৪১ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, মার্চ ২০, ২০২০ ঢাকা
shamim_osman

সময়েরব কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ মুজিববর্ষকে কেন্দ্র করে হাফেজদের দিয়ে ৫ হাজার ২৭৫ বার কোরআন খতম করিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান। শুক্রবার (২০ মার্চ) নারায়ণগঞ্জ মাসদাইর কবরস্থ জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করে বিষয়টি জানান তিনি।

শামীম ওসমান বলেন, কোনো কিছুর বিনিময় ছাড়াই স্বেচ্ছায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে হাফেজ সাহেব ও এতিমরা ৫২৭৫ বার কোরআনে খতম দিয়েছেন। এই খতমে কোরআন আল্লাহর নবীর নামে বখশে দেওয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবার এবং সব শহীদদের নামেও বখশে দেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে দোয়া করা হয়েছে বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যার জন্য।

‘পাশাপাশি পৃথিবীব্যাপী যে মহামারিতে মানব সম্প্রদায় আজ কঠিন মুহূর্তে উপনীত হয়েছে সেখানে একমাত্র সৃষ্টিকর্তাকে স্মরণ ও তার কাছে ক্ষমা ভিক্ষা ছাড়া আমাদের আর কিছুই করার নেই। তাই পবিত্র কোরআনখানির মাধ্যমে এই পন্থাকেই আমি সর্বোত্তম বলে মনে করেছি।’

তিনি বলেন, এই মসজিদের পাশেই কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন আমার দাদা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য ও ভাষা সৈনিক খান সাহেব ওসমান আলী, বঙ্গবন্ধুর সান্নিধ্য ও স্নেহ পাওয়া আমার মা ভাষা সৈনিক নাগিনা জোহা, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও ভাষা সৈনিক আমার বাবা একেএম সামুসজ্জোহা, যিনি ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে মুক্ত করতে গুলি খেয়েছিলেন। এখানে চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন আমার বড় ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসিম ওসমান। যিনি বিয়ের পরদিনই বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিশোধ নিতে প্রতিরোধ যুদ্ধে চলে গিয়েছিলেন। মূলত যে নারায়ণগঞ্জে জাতির জনকের ব্যাপক বিচরণ ছিল, যে নারায়ণগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জবাসীকে বঙ্গবন্ধু ভালোবাসতেন সেই নারায়ণগঞ্জের মাটিতে ব্যাপকভাবে মুজিববর্ষ পালনের পরিকল্পনা ছিল আমাদের। কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী করোনা পরিস্থিতিতে আল্লাহকে খুশি করাই এখন সর্বোত্তম এবং একমাত্র কাজ আমাদের।

করোনা ইস্যুতে বাজার পরিস্থিতি নিয়ে শামীম ওসমান বলেন, এখন মজুদদারির সময় নয়, পাশে দাঁড়ানোর সময়। যারা দাম বাড়িয়ে অর্থ কামাচ্ছেন তারাও তো এই মহামারীরিতে আক্রান্ত হতে পারেন, এটা চিন্তা করলেই মনে হয় তাদের হেদায়েত আসবে।