সংবাদ শিরোনাম
করোনা: প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে ১০ কোটি টাকা দিচ্ছে বসুন্ধরা গ্রুপ | করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশকে সহায়তার আশ্বাস ব্রিটিশ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর | করোনা আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে সমবেদনা জানিয়ে শেখ হাসিনার চিঠি | শেষবারের মতো মায়ের মুখটাও দেখতে পারলেন না হাবিবুল বাশার | গাজীপুরে জীবাণুনাশক স্প্রে করেছে ছাত্রলীগ | করোনা প্রতিরোধে লকডাউন, ইউরোপে বাড়ছে গৃহদ্বন্দ্ব ও সহিংসতা | বাবা প্রবাসে, মায়ের পরকীয়ার বলি হলো সাত বছরের মেয়ে! | স্ত্রীসহ করোনায় আক্রান্ত কাজী মারুফ | এবার সেই নারী এসিল্যান্ডকে ধর্ষণের হুমকি! | ‘জ্বর-শ্বাসকষ্টে’ ভুগছে এক পরিবারের সবাই, ভয়ে হাসপাতালেই নিচ্ছে না কেউ! |
  • আজ ১৫ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

করোনা আতঙ্কে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ল

৫:১১ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, মার্চ ২৪, ২০২০ শিক্ষাঙ্গন
sikkha

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে প্রাক-প্রাথমিক থেকে সব রকমের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির সময় বৃদ্ধি করা হয়েছে। ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সময় দেয়া থাকলেও বেড়ে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক মিটিংয়ে এ সিদ্বান্ত হয়। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করে মন্ত্রী এ সিদ্বান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবুল খায়ের।

আবুল খায়ের জানান, ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। কিন্তু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৩১ মার্চ পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা আছে। তাই আজ ছুটি বাড়ানোর বিষয়ে দুই মন্ত্রণালয় বৈঠকের পর এ নির্দেশনা দেয়া হয়।

এর আগে, সোমবার (১৬ মার্চ) করোনা ভাইরাস আতঙ্কে ১৮ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল। এছাড়া ১৮ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকবে।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, করোনার সংক্রমণ যাতে না ছড়ায়, তাই এ সিদ্ধান্ত। তিনি বলেন, সতর্কতামূলক ব্যবস্থার অংশ হিসেবে এ সিদ্ধান্ত। মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। গ্রীষ্মের ছুটি, রোজার ছুটির সাথে প্রয়োজনে এ ছুটিকে সমন্বয় করা হবে। তখন ছুটি কমে আসতে পারে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মুনশী শাহাবুদ্দীনসহ মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

Loading...