সংবাদ শিরোনাম
স্পেনে কর্মহীন প্রবাসীদের মাঝে ভালিয়েন্তে বাংলার খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম অব্যহত | হঠাৎ ব্রেন স্ট্রোক, মোহাম্মদ নাসিমের অবস্থা সংকটাপন্ন | সবজি বিক্রি করতে হাটে যাওয়ার পথে মাইক্রোবাস চাপায় কৃষকের মৃত্যু | বিক্ষোভে বাধা দেওয়ার অভিযোগে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলা | মসজিদের ইমামের গলায় জুতার মালা পড়ানো সেই চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার | ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থা ভালো না | করোনায় মারা গেলেন ইউরোলজিস্ট অধ্যাপক ডা. কিবরিয়া | চট্টগ্রামে একদিনে ৪৬৪ নমুনা পরীক্ষায় ১৪০ জনের করোনা শনাক্ত | সৌদি আরবে কেন করোনায় বাংলাদেশিরা বেশি মারা যাচ্ছেন? | হিলি বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকায় ৭৫ কোটি টাকা রাজস্ব থেকে বঞ্চিত সরকার |
  • আজ ২২শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দ্বিতীয় দফায় বাড়ল হজ নিবন্ধনের সময়

১০:১৩ অপরাহ্ণ | বুধবার, মার্চ ২৫, ২০২০ ইসলাম
hzzz

ইসলাম ডেস্কঃ এ বছর হজের নিবন্ধন কার্যক্রমের সময় আগামী ৮ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। করোনা আতঙ্কে কাঙ্ক্ষিত সংখ্যায় হজ নিবন্ধন না হওয়ায় আবারও সময় বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় ধর্ম মন্ত্রণালয়। বুধবার (২৫ মার্চ) এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

হজ অফিস সূত্র জানিয়েছে, বুধবার রাত ৮টা পর্যন্ত হজ নিবন্ধন করেছেন ৪১ হাজার ৮৫৪ হজযাত্রী। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় নিবন্ধন করেছেন ৩ হাজার ৩৫৯ জন এবং বাকিরা বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রী।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ বলেন, ‘২০২০ সালের হজ কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী এজেন্সিসমূহকে ‘হজযাত্রী নিবন্ধন ব্যাংক হিসাব’ ব্যবহার বিষয়ে বেশকিছু নির্দেশ গুরুত্বসহকারে পালন করতে হবে। গত ২ মার্চ থেকে হজযাত্রী নিবন্ধন কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বর্তমানে ওমরাহযাত্রী প্রেরণ ও সৌদি আরবের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ আছে। তবে পরিস্থিতি উন্নত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ২০২০ সালে হজযাত্রী প্রেরণের লক্ষ্যে নিবন্ধন কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হয়েছে।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় বিমান ভাড়া এবং সার্ভিস চার্জ বাবদ ১ লাখ ৫১ হাজার ৯৯০ টাকার অতিরিক্ত অন্য কোনো ব্যয় বাবদ কোনো অর্থ গ্রহণ করা যাবে না।

তিনি বলেন, অবশিষ্ট অর্থ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জমা দেয়ার জন্য হজযাত্রীকে প্রস্তুত রাখতে হবে। নিবন্ধনের সময় হজযাত্রী এবং এজেন্সিকে আবশ্যিকভাবে নগদ লেনদেন পরিহার করতে হবে। কোনো অবস্থাতেই মধ্যস্বত্বভোগী বা তথাকথিত গ্রুপ লিডারের মাধ্যমে লেনদেন করা যাবে না।

নিবন্ধনের সময় হজযাত্রীর পক্ষ থেকে জমাকৃত অর্থ শুধু হজ কার্যক্রমেই ব্যয় করতে হবে। নিবন্ধন ভাউচারের মাধ্যমে ব্যাংকে টাকা জমা দিয়ে নিবন্ধন করতে হবে। হজযাত্রী থেকে এজেন্সির ব্যাংক হিসাব ব্যতীত কোনোভাবে নগদ লেনদেন করা হলে এ জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না।

প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের মাধ্যমে হজযাত্রী, নিবন্ধনে নিয়োজিত এজেন্সি এবং সংশ্লিষ্ট ব্যাংককে আবশ্যিকভাবে এ নির্দেশনাসমূহ অনুসরণ করার জন্য অনুরোধ জানান।