নন্দীগ্রামে ২৬ টি হাট-বাজার বন্ধ, প্রস্তুত প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন

৪:২৬ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৬, ২০২০ দেশের খবর, রাজশাহী

মুনিরুজ্জামান মুনির, নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি- বগুড়ার নন্দীগ্রামে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে উপজেলা প্রশাসন। এ কার্যক্রমের আওতায় হোম কায়ারেন্টাইনে থাকা প্রবাসীদের বাড়িতে লাল পতাকা টাঙিয়ে দেয়া হয়েছে।

এছাড়াও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে উপজেলায় ২৬ টি হাট-বাজার বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সেই সাথে প্রস্তুত করা হয়েছে ১১৭ শয্যা বিশিষ্ট ১৩টি প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, করোনা ভাইরাস পর্যবেক্ষণের জন্য বিদেশ ফেরত ৬৪ ব্যক্তিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হওয়ায় ২৮ জনকে স্বাভাবিক চলাফেরার অনুমতি দেয়া হয়েছে। যারা এ নির্দেশ অমান্য করবে তাদের জন্য প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়াও করোনা বিষয়ে যেকোন তথ্য ও সেবার জন্য উপজেলা কন্টোল রুম খোলা হয়েছে।

এদিকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে নন্দীগ্রাম উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা মিলে ২৬ টি হাট-বাজার বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখার জন্য উপজেলা জুড়ে চলছে মাইকিং। এছাড়াও করোনা সর্স্পকে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে লিফলেট বিতরণ করাসহ জনসাধারণকে নিজ নিজ ঘরে অবস্থান করার জন্য তাগিত দেওয়া হচ্ছে। একই সাথে গণপরিবহন, দোকান ও মার্কেট গুলো বন্ধ রয়েছে। তবে ওষুধের দোকান কাঁচা বাজার খোলা রয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আখতারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সন্দেহভাজন কোন ব্যক্তি হোম কোয়ারেন্টাইনে না থেকে প্রকাশ্যে ঘোরাফেরা করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এবং তাকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। এজন্য ১৩টি প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন প্রস্তুত করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে উপজেলায় ২৬ টি হাট-বাজার বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সেই সাথে জনসমাগম ও দলবেধে চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।