সংবাদ শিরোনাম
চাঁদরাতে দীর্ঘদিনের বন্ধুর হাতে নৃশংস খুন হলো যুবক! | ঈদের দিন সকালে সিমান্তের কাছে মিললো ব্রাক কর্মকর্তার লাশ | জাতীয় কবির ১২১তম জন্মজয়ন্তী আজ | মুসলমানদের অবদানের কথা তুলে ধরে পুতিনের ঈদ শুভেচ্ছা | ঈদ শুভেচ্ছার তোরণ নিয়ে আঃলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, প্রাণ গেলো ছাত্রলীগ নেতার | মুসলিমদের ঈদ শুভেচ্ছা জানালেন জেসিন্ডা | বিশ্বের সকল মুসলিমকে ঈদের শুভেচ্ছা ওজিল-পগবার | এ ধরনের ঈদ উদযাপন করবো কোনোদিন চিন্তা করিনি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী | কাউন্টার টেররিজমের সতর্কবার্তায় নিজের ভুল শুধরে ক্ষমা চাইলেন ‘বিতর্কিত’ নোবেলম্যান | ঈদের দিনে দুপুর অবধি দেশের ৫ অঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টির আভাস |
  • আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

জনদুর্ভোগের জন্য ক্ষমা চাইলেন মোদি

১:০৭ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, মার্চ ৩০, ২০২০ আন্তর্জাতিক
modi

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় টানা ২১ দিনের লকডাউনে রয়েছে ভারত। বন্ধ রয়েছে ব্যবসা ও কাজ। প্রতিদিন বাড়ছে অর্থনৈতিক ও মানবিক ক্ষতির পরিমাণ। যথাযথ পরিকল্পনা না করে এমন লকডাউন জারি করায় সমালোচনার মুখে পড়েছে ভারত সরকার। এমতাবস্থায়, দেশের দরিদ্র শ্রেণির কাছে ক্ষমা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

মোদি দেশব্যাপী প্রচারিত এক রেডিও বার্তায় বলেন, আমি প্রথমেই আমার দেশের মানুষের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।’ তিনি মানুষকে বুঝিয়ে বলার চেষ্টা করেন যে তার আর কোন উপায় ছিল না। দরিদ্র মানুষরা নিশ্চয়ই ভাবছে এ কেমন প্রধানমন্ত্রী, যিনি কিনা আমাদের এমন বিপদে ফেলে দিয়েছেন।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সেগুলো ভারতকে করোনার বিরুদ্ধে জয়ী করবে।’

করোনা মোকাবিলায় কঠোর পদক্ষেপের প্রতিও অনেক ভারতীয়র তীব্র সমর্থন রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কঠোর লকডাউনের কারণে ভাইরাসটির সংক্রমণ কমবে। তবে অর্থনৈতিক ধস দরিদ্র গোষ্ঠীর মধ্যে ক্ষোভের জন্ম দিচ্ছে।

রোববার (২৯ মার্চ) পর্যন্ত ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৭৯ জনে এবং মোট মৃত্যু হয়েছে ২৫ জনের।