• আজ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দাফনের পর জানা গেল করোনায় মৃত্যু হয়নি, লকডাউন মুক্ত হলো গ্রাম

৯:২৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, মার্চ ৩১, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর

দেওয়ান আবুল বাশার, স্টাফ রিপোর্টার: দাফনের পর জানা গেল সুচিত্রা সরকারের মৃত্যু করোনায় হয়নি। জ্বর-কাশি ও শ্বাসকষ্টেই মারা গেছেন তিনি। ইতিমধ্যেই গ্রামটিকে লকডাউন মুক্ত ঘোষণা করেছে উপজেলা প্রশাসন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাবিনা ইয়াসমিন জানান, মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার কৌচা-বড়ইচড়া গ্রামটি লকডাউন মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। তবে গ্রামটির সবাইকে প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এর আগে গত রোরবার সকাল ১০টার দিকে ওই গ্রামের সুচিত্রা (৩২) নামে এক নারী জ্বর-সর্দি নিয়ে মানিকগঞ্জ সদরের মুন্নু হাসপাতালে মারা যান। পরে তার নমুনা সংগ্রহ করে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়।

সুচিত্রা হরিরামপুরের বলড়া ইউনিয়নের বড়ইছড়া গ্রামের নিতাই সরকারের স্ত্রী।

সিভিল সার্জন জানান, গত রোববার জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত সুচিত্রা মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার মুন্নু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনার পথে মারা যান। তিনি কয়েক দিন ধরে ওই উপসর্গ নিয়ে অসুস্থ ছিলেন।

মৃত ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কিনা- তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য ওই দিনই নমুনা সংগ্রহ করে রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়। সেই পরীক্ষায় তার করোনাভাইরাস ধরা পড়েনি।

মুন্নু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. মাহমুদুল হাসানও একই কথা জানান।

এদিকে ওই দিন বিকালে সুচিত্রা সরকারকে বাড়ির পাশের একটি জায়গায় মাটি দেয়া হয়েছে। ওই ঘটনার পর পরই প্রশাসন বড়ইছড়া গ্রামটিকে লকডাউন ঘোষণা করেছিল।