• আজ ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে হতদরিদ্রদের মাঝে সাংবাদিক আশিকের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ

২:২০ অপরাহ্ণ | বুধবার, এপ্রিল ১, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর

রাজু আহমেদ, ষ্টাফ রিপোর্টার- করোনা ভাইরাস আতঙ্কে গোটা বিশ্ব। বিশ্বের মোড়ল দেশগুলির সাথে সাথে বাংলাদেশকেও লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। লকডাউনে ঘরবন্দী রাজবাড়ীর খেটে খাওয়া হতদরিদ্র পরিবারগুলোর অবস্থা খুবই নাজুক। খেয়ে না খেয়ে দিনপাত করতে হচ্ছে তাদের। এমতাবস্থায় তাদের সহযোগীতায় এগিয়ে এলেন রাজবাড়ীর তরুণ সাংবাদিক আশিকুর রহমান।

সাংবাদিক আশিকুর রহমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করা ৩০টি হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী ও মাস্ক বিতরণ করেছেন।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) বিকালে সদর উপজেলার বসন্তপুর রেল স্টেশনে পরিবার প্রতি পাঁচ কেজি করে চাল, এক লিটার সয়াবিন তেল, এক কেজি মসুরের ডাল, এক কেজি আলু, আধা কেজি লবণ, একটি সাবান ও একটি করে মাস্ক বিতরণ করা হয়।

এ সময় রাজবাড়ীর খানখানাপুর পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মো. শহীদুল ইসলাম, যুগান্তর পত্রিকার রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক হেলাল মাহমুদ ও সাংবাদিক আশিকুর রহমান এবং তার পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

আশিকুর রহমান জিটিভি ও সারাবাংলা.নেটের রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি। এছাড়াও তিনি রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম- এর বার্তা সম্পাদক এবং দৈনিক মাতৃকণ্ঠ পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

সাংবাদিক আশিকুর রহমান বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে আমি আমার এলাকা বসন্তপুর ইউনিয়ের কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করা হতদরিদ্র মানুষের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করার উদ্যোগ নিই। এটা জানতে পেরে আমার খুব কাছের চারজন ভাই কিছু অর্থনৈতিক সহযোগীতা করেন। সেই অর্থ মিলিয়ে এবং আমার যতটুকু সামর্থ আছে তা দিয়ে প্রথম ধাপে আমি ৩০ টি হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে কিছু খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করতে পেরেছি। পরিবারের সংখ্যা কম হলেও খাদ্য সামগ্রীগুলো এমন পরিমাণে দিয়েছি যাতে একেকটি পরিবার অন্তত পাঁচদিন খেয়ে বাঁচতে পারেন। করোনাভাইরাসের এই দুর্যোগ যতোদিন থাকবে ততোদিন আমি ধাপে ধাপে হতদরিদ্র পরিবারগুলোর মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণের ধারা অব্যাহত রাখবো ইন শা আল্লাহ।

করোনাভাইরাসের এই পরিস্থিতিতে হতদরিদ্র মানুষের দিকে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেবার জন্য বিত্তবানদের প্রতি অনুরোধ জানান সাংবাদিক আশিকুর রহমান।