সংবাদ শিরোনাম
ঈদের দিন সকালে সিমান্তের কাছে মিললো ব্রাক কর্মকর্তার লাশ | জাতীয় কবির ১২১তম জন্মজয়ন্তী আজ | মুসলমানদের অবদানের কথা তুলে ধরে পুতিনের ঈদ শুভেচ্ছা | ঈদ শুভেচ্ছার তোরণ নিয়ে আঃলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, প্রাণ গেলো ছাত্রলীগ নেতার | মুসলিমদের ঈদ শুভেচ্ছা জানালেন জেসিন্ডা | বিশ্বের সকল মুসলিমকে ঈদের শুভেচ্ছা ওজিল-পগবার | এ ধরনের ঈদ উদযাপন করবো কোনোদিন চিন্তা করিনি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী | কাউন্টার টেররিজমের সতর্কবার্তায় নিজের ভুল শুধরে ক্ষমা চাইলেন ‘বিতর্কিত’ নোবেলম্যান | ঈদের দিনে দুপুর অবধি দেশের ৫ অঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টির আভাস | ৩০ মে’র পর ছুটি বাড়ানোর সম্ভাবনা নিয়ে যা বলছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় |
  • আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বরিশালে চরমোনাই পীর ও ইউপি চেয়ারম্যানসহ তিন ভাইয়ের খাদ্রসামগ্রী বিতরণ

৭:২৩ অপরাহ্ণ | বুধবার, এপ্রিল ১, ২০২০ দেশের খবর

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: বরিশালের চরমোনাইতে করোনাভাইরাসের কারণে দূর্দশাগ্রস্থ পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছেন তিন সহদোর ভাই চরমোনাই পীর ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ রেজাউল করীম, নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ ফয়জুল করীম ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মুফতী সৈয়দ ইসহাক মো. আবুল খায়ের।

আজ মঙ্গলবার চরমোনাই ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ঘুরে তারা মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন।

এসময় সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে আইএবি আমীর মুফতী রেজাউল করীম, বিত্তবানদেরকে করোনা মহামারীতে সারাদেশ লকডাউন অবস্থায় দরিদ্র অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, করোনা ভাইরাস থেকে বেচে থাকার উপায় উপকরণ নেই বললেও চলে। সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের মধ্যে সমন্বয়ের অভাব নিয়ে বিশেষজ্ঞরা মুখ খুলছেন।

প্রয়োজনীয় ইকুইপমেন্ট না থাকায় ইতোমধ্যে ৩ জন ডাক্তার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। রোগীর সংখ্যা বাড়লে ডাক্তারদের নিরাপত্তা কী হবে, সে ব্যাপারে বিশেষজ্ঞরা তাদের আশংকা প্রকাশ করেছেন। আমি আশা করি, সরকার যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে এ বিষয়ে প্রস্তুতির ঘাটতি বা দূর্বলতা দূর করার চেষ্টা করবেন।

সৈয়দ রেজাউল করীম আরো বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে যে গজব বিশ্বজুড়ে নেমে এসেছে তা মোকাবেলা করার সাধ্য কারো নেই। আল্লাহর কাছে বেশি বেশি ইসতেগফার করে আমাদের গুনাহ মাফ করানোর মাধ্যমে এর থেকে পরিত্রাণ পেতে পারি। এছাড়া যে কোনো বালা মুসিবত থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আল্লাহর রাসূল সা. বেশি বেশি দান সদকাহ করতে বলেছেন। এজন্য মহামারী থেকে মুক্তি পেতে সামর্থবান মানুষের উচিত দরিদ্র মানুষের মধ্যে দান সদকাহ বেশি পরিমাণে করা।

তিনি বলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ও সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন স্থানে খাদ্যসামগ্রী, সাবান, স্যানিটাইজার, মাস্ক ইত্যাদি বিতরণ করছে। খেদমতে খালক্বের অংশ হিসেবে এই কার্যক্রম আরো বেগবান করতে সারাদেশের নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেন তিনি