সংবাদ শিরোনাম
চাঁদরাতে দীর্ঘদিনের বন্ধুর হাতে নৃশংস খুন হলো যুবক! | ঈদের দিন সকালে সিমান্তের কাছে মিললো ব্রাক কর্মকর্তার লাশ | জাতীয় কবির ১২১তম জন্মজয়ন্তী আজ | মুসলমানদের অবদানের কথা তুলে ধরে পুতিনের ঈদ শুভেচ্ছা | ঈদ শুভেচ্ছার তোরণ নিয়ে আঃলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, প্রাণ গেলো ছাত্রলীগ নেতার | মুসলিমদের ঈদ শুভেচ্ছা জানালেন জেসিন্ডা | বিশ্বের সকল মুসলিমকে ঈদের শুভেচ্ছা ওজিল-পগবার | এ ধরনের ঈদ উদযাপন করবো কোনোদিন চিন্তা করিনি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী | কাউন্টার টেররিজমের সতর্কবার্তায় নিজের ভুল শুধরে ক্ষমা চাইলেন ‘বিতর্কিত’ নোবেলম্যান | ঈদের দিনে দুপুর অবধি দেশের ৫ অঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টির আভাস |
  • আজ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

টাঙ্গাইলে জ্বর,সর্দি,কাশি নিয়ে আ.লীগ নেতার মৃত্যু, বাড়ি লকডাউন

১২:০৮ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, এপ্রিল ৭, ২০২০ ঢাকা
lock

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের গোপালপুরে জ্বর, সর্দি-কাশি নিয়ে জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম খানের (৫৫) মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার (০৬ এপ্রিল) নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় পর তার বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। একইসঙ্গে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কি না তা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

জাহাঙ্গীর আলম খান টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক এবং টাঙ্গাইল জেলা আদালতে আইন পেশায় নিয়োজিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আলীম আল রাজী বলেন, জাহাঙ্গীর আলম হৃদরোগ ও শ্বাসকষ্টেও ভুগছিলেন। তাকে আজ সকালে গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তার স্বজনেরা মৃত অবস্থায় নিয়ে আসেন। তিনি রবিবার স্থানীয় একজন ফার্মাসিস্টের কাছ থেকে চিকিৎসা নিয়েছিলেন। ওই ফার্মাসিস্টের মাধ্যমে জানতে পেরেছি, তার শ্বাসকষ্টসহ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার নানা উপসর্গ ছিল। ওই ফার্মাসিস্ট তাকে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন। এরপরই তিনি সোমবার ভোর রাতে মারা যান।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনার পর করোনাভাইরাস সন্দেহে তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আগামীকাল সিভিল সার্জন অফিস থেকে নমুনা ঢাকায় পাঠানো হবে। পরে বিশেষ ব্যবস্থায় সকল নিয়ম কানুন মেনে তাকে দাফন করা হয়েছে।

গোপালপুর থানার ওসি মুস্তাফিজুর রহমান বলেন, এ ঘটনার পর জাহাঙ্গীর আলমের বাড়ি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে লকডাউন করা হয়েছে। ওই বাড়ি থেকে কেউ বের হতে এবং অন্য কেউ বাড়িতে প্রবেশ করতে পারবেন না।