ফুলগাজীর ৭ গ্রামের ৯ বাড়ি মনিটরিংয়ের আওতায়

১২:০৯ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, এপ্রিল ১১, ২০২০ চট্টগ্রাম
Feni

আব্দুল্লাহ রিয়েল, ফেনী প্রতিনিধি:  সারাদেশে দিন দিন মহামারী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এমন পরিস্থিতি মোকাবেলায় সবাইকে ঘরে থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন সরকার ও কর্তৃপক্ষ। কিন্তু অনেকেই তা  মানছেন না। ইতোমধ্যে দেশের বেশ কয়েকটি এলাকায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে এরমধ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম নারায়ণগঞ্জ গুরুত্বপূর্ণ।

গত কয়েকদিন যাবৎ ফেনীর ফুলগাজীতে ঢাকা,চট্টগ্রাম ও নারায়ণগঞ্জ থেকে বেশ কয়েকজন এসেছেন। বিভিন্ন জেলা থেকে ফেনীতে এসেছেন এমন বেশ কিছু বাড়ি ইতোমধ্যেই চিহ্নিত করা হয়েছে। এজন্য ফুলগাজী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের সাতটি গ্রামের নয়টি বাড়িকে জরুরী মনিটরিংয়ের আওতায় এনেছে ফুলগাজী উপজেলা প্রশাসন।

১০ই এপ্রিল শুক্রবার বিকালে এ সংক্রান্ত একটি গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে উপজেলা প্রশাসন।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয় ফুলগাজী সদর ইউনিয়নের জয়পুর গ্রামে কবির দরবেশের বাড়ি, পূর্ব ঘনিয়া মোড়া গ্রামে তালেব আলীর বাড়ি, মনতলা গ্রামের মুসা মিয়ার বাড়ি ও নুরু মিয়ার বাড়ি। মুন্সিরহাট ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামের পালপাড়া নবীন ডাক্তারের বাড়ি, উত্তর জাম্মুরা গ্রামের হাজী জমিদার বাড়ি। জিএম হাট ইউনিয়নের শ্রীচন্দ্রপুর গ্রামে প্রমথ চৌধুরীর বাড়ি ও ওসি মোতালেব এর বাড়ি। দরবারপুর ইউনিয়নের উত্তর শ্রীপুর গ্রামের চৌধুরী বাড়ি সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটি সার্বক্ষণিক মনিটরিং করবেন এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে অবহিত করবেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম সোহেল জানান, যেহেতু এখন পর্যন্ত ফুলগাজীর কোন বাড়িতে কোন ব্যক্তি কারোনা আক্রান্ত হননি। নিয়ম অনুযায়ী কোন ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত না হলে লকডাউন করা যাবে না।