লক্ষ্মীপুরে করোনার উপসর্গ নিয়ে দুই জনের মৃত্যু, ৮টি বাড়ি লকডাউন

১১:৪১ অপরাহ্ণ | শনিবার, এপ্রিল ১১, ২০২০ চট্টগ্রাম
mrittu

মু.ওয়াছীঊদ্দিন, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এতে ৮ বাড়ি লকডাউনে রাখা হয়েছে। শনিবার দুপুরে রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির জাহান ও কমলনগর উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ আমিনুল ইসলাম পৃথক ভাবে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

শনিবার ভোর রাতে রামগঞ্জ উপজেলার শেফালীপাড়া গ্রামে সর্দি, জ্বর, কাশি, ডায়েরিয়া, গলা ব্যথা নিয়ে ৪০ বছর বয়সী এক রাজমেস্তুরির (জামাল হোসেন) মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় সকালে ৫টি বাড়ি লকডাউনে রাখা হয়। অপর দিকে শুক্রবার মধ্যরাতে কমলনগর উপজেলার চর ফলকন গ্রামে একই অসুস্থ্যতা নিয়ে ৫৫ বছর বয়সী একব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এতে ওই বাড়িরসহ ৩টি বাড়ি লকডাউনে রাখা হয়।

রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির জাহান জানান, নিহত ওই রাজমেস্ত্রী ৪/৫ দিন যাবত সর্দি, জ্বর, কাশি, ডায়েরিয়া, গলা ব্যথা ভোগে ভুগছিলেন। উপজেলা চিকিৎসক তার নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠিয়েছেন। ওই ব্যক্তির বিচরণকৃত বাড়িসহ ৫ বাড়ি লকডাউনে রাখা হয়েছে। এছাড়াও ইসলামী ফাউন্ডশন রামগঞ্জ শাখার প্রশিক্ষন প্রাপ্ত ইমাম দ্বারা লাশ দাফন করা হয়েছে।

এদিকে কমলনগর উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ আমিনুল ইসলাম জানান, গত দু’দিন ধরে ডায়েরিয়াসহ জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন তিনি। হঠাৎ রাতে অসুস্থ্যতা বেড়ে গেলে বাড়িতেই তার মৃত্যু হয়। ঘটনার পর নিহতের শরীরে করোনা উপসর্গ আছে কিনা নিশ্চিত হওয়ার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ওই বাড়িসহ ৩টি বাড়ি লক ডাউনে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, লক্ষ্মীপুর জেলায় গত চব্বিশ ঘন্টায় লক্ষ্মীপুরে ১৭৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে প্রেরণ করা হয়েছে। জেলার পাঁচ উপজেলায় এ পর্যন্ত ২২৯০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়। এদের মধ্যে কোয়ারেন্টাইন শেষে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে ২০৫৭ জনকে। তবে বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে আছেন ২৩৩ জন।