মেয়েকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে কুপিয়ে খুন করলো ইউপি সদস্য

৯:৩৩ অপরাহ্ণ | সোমবার, এপ্রিল ২০, ২০২০ স্পট লাইট

সময়ের কন্ঠস্বর ডেস্ক: কুমিল্লায় এসএসসি পরীক্ষার্থী মেয়েকে উত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযুক্ত ইউপি সদস্যদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান।

গত ১৬ই এপ্রিল রাত সাড়ে ৯টার দিকে কুমিল্লার লালমাইয়ের ইছাপুর গ্রামে দরিদ্র কৃষক আমান উল্লাহর মেয়েকে উত্যক্ত করতে বসতঘরে হানা দেয় বেলঘর উত্তর ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেনের ছোট ভাই সোরহাব। এ সময় পরিবারের সদস্যরা টের পেয়ে চোর বলে চিৎকার দিলে সোরহাবকে গণধোলাই দেয় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে ইউপি সদস্য ও তার সহযোগীরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে কৃষক আমান উল্লাহকে কুপিয়ে জখম এবং তার বসতঘরে ভাঙচুর চালায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রাজধানীর পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করলে গত শনিবার সকালে মারা যান তিনি।

নিহতের ছেলে জানান, আমার বাবাকে ধরে নিয়ে মারধর করেছে। তাকে ধরে আছাড় দিছে। আমি এ সন্ত্রাসীদের শাস্তি চাই।

অভিযুক্ত ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেনের অত্যাচারসহ নানা অনিয়মের কথা তুলে ধরে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও এলাকাবাসী।

কুমিল্লার বেলঘর উত্তর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মহিউদ্দিন মজুমদার তুষার জানান, তিনি দীর্ঘদিন ধরে সাধারন মানুষের ওপর বিভিন্ন রকম অত্যাচার করে আসছিলো। শুধু খুন করাটাই বাকি ছিলো, সেটাও সে করলো।

কুমিল্লার বেলঘর উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের মজুমদার জানান, প্রতিটা মানুষের সঙ্গে তার আচারণ খুবই খারাপ ছিলো। আমরাও চাই তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক।

এ ঘটনায় ৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ২০ জনকে আসামি করে লালমাই থানায় মামলা করা হয়েছে।

কুমিল্লা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানান, যারা এই খুনের সঙ্গে জড়িত তাদেরকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হবে।