🌏 সংবাদ শিরোনাম

সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সর্বত্র শান্তি বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর: প্রধানমন্ত্রী | চাঁদপুরে মাস্ক পরা অভিযানে প্রশাসনের জালে ছিনতাইকারী! | তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপন প্রকল্পের অনুমোদন | করোনা মুক্ত জেমি ডে, যাচ্ছেন কাতারে | বাবুনগরী ও মামুনুলকে দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি ৬৫ সংগঠনের | আইসিডিডিআর,বির সঙ্গে ভ্যাকসিন ট্রায়াল চুক্তি বাতিল করলো গ্লোব বায়োটেক | সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দালাল দৌরাত্ব, রোগীরা সেবা বঞ্চিত | "ধর্মের অপব্যাখ্যা দিয়ে ইতিহাস-ঐতিহ্যকে নষ্ট করতে চাইলে সহ্য করা হবে না" | ছাদ থেকে লাফিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্মহত্যা | নভেম্বরে ৩৫৩ নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার, ধর্ষণ ১৫৩ |

  • আজ ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
  • f

সাকিবকে ফাঁসানো সেই আগারওয়াল নিষিদ্ধ

⏱ ১০:৩৭ অপরাহ্ন | বুধবার, এপ্রিল ২৯, ২০২০ 📂 খেলা
sakib

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ দীপক আগারওয়াল নামে এক জুয়াড়ির কাছ থেকে পাওয়া প্রস্তাব গোপন করায় ২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন টাইগারদের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের সাকিব আল হাসান। এবার সেই জুয়াড়িকেই নিষিদ্ধ করলো বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা (আইসিসি)। আগারওয়ালের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদও ২ বছর।

বুধবার সন্ধ্যায় আইসিসির ওয়েবসাইটে বিষয়টি জানানো হয়েছে। টি-১০ টুর্নামেন্টের ফ্রাঞ্চাইজি সিন্ধির মালিকদের একজন দীপক আগারওয়াল। শৃঙ্খলা আইনের অনুচ্ছেদ ২.৪.৭ ধারা ভঙ্গের অভিযোগে আগারওয়ালকে শাস্তি দিয়েছে আইসিসি।

অভিযোগ উঠেছে, তদন্তকে বাধা দেওয়া বা বিলম্ব করা, তদন্তের সাথে প্রাসঙ্গিক হতে পারে এমন কোনও ডকুমেন্টেশন বা অন্যান্য তথ্য গোপন করা, তদন্তে হস্তক্ষেপ করা বা ধ্বংস করা সহ এবং যা প্রমাণ হিসাবে বা এর অধীনে রয়েছে সেগুলো নষ্ট করা হয়েছে।

আইসিসির অভিযোগ স্বীকার করে নিয়েছেন আগারওয়াল এবং দুর্নীতি দমন ট্রাইব্যুনালের শুনানির পরিবর্তে আইসিসির সাথে অনুমোদনের বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন। তাকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ২০২১ সালের ২৭ অক্টোবরের পর যে কোনো ক্রিকেটীয় কর্মকান্ডে জড়িত হতে পারবেন।

আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল বলেছেন,‘আগারওয়ালের আমাদের তদন্তকে বাধা এবং বিলম্ব করার বেশ কয়েকটি উদাহরণ রয়েছে এবং এটি কেবল একটি ঘটনা ছিল না। তবে তিনি আইসিসি দুর্নীতি দমন কোডের লঙ্ঘনের অভিযোগ স্বীকার করেছেন এবং অন্যান্য অংশগ্রহণকারীদের জড়িত বেশ কয়েকটি তদন্তের ক্ষেত্রে এসিইউতে যথেষ্ট সহায়তা প্রদান করেছেন। এই সহযোগিতা তার শাস্তির ওপরেও প্রতিফলিত হয়েছে।’

উল্লেখ্য সাকিবকে কয়েক দফা ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব দিয়েছিলেন আগারওয়াল। সাকিব তাতে রাজি না হয়ে চেপে গিয়েছিলেন ঘটনা। যার ফলস্বরূপ এক বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞাসহ দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয় সাকিবকে।

এরিমধ্যে ছয় মাস নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ পার করেছেন দেশ সেরা অল-রাউন্ডার। সব ঠিক থাকলে চলতি বছরের অক্টোবর নাগাদ আবার মাঠে নামতে পারবেন সাকিব আল হাসা। সেই হিসেবে সাকিব থাকতে পারেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্কোয়াডেও।