চাঁদরাতে দীর্ঘদিনের বন্ধুর হাতে নৃশংস খুন হলো যুবক!

১:২৮ অপরাহ্ণ | সোমবার, মে ২৫, ২০২০ ঢাকা, দেশের খবর
বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বর- মাত্র এক মাস আগে সাদিয়া নামের একজনকে বিয়ে করেছিলেন ফেরদৌস (৩০)। এরইমধ্যে ভাগ্যের নির্মমতার শিকার হলেন তারা দুজনই। রাত পোহালেই ঈদ। বিবাহিত জীবনের প্রথম ঈদ হতো এই দম্পতির। তার আগেই চাঁদ রাতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ফেরদৌস নৃশংসভাবে খুন হয়েছে তার দীর্ঘদিনের বন্ধুর হাতে।

হত্যাকাণ্ডের আড়াই ঘন্টা পর রাতেই নিহত ফেরদৌসের বন্ধু অভিযুক্ত রাকিবকে আটক করেছে পুলিশ। তবে এই সংবাদ লিখা পর্যন্ত হত্যাকান্ডের কারন নিয়ে মুখ খোলেনি অভিযুক্ত রাকিব।

রবিবার (২৫ মে) দিনগত রাত একটার দিকে সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার মুসলিমনগর এলাকায় লোকমান হোসেনের বাড়িতে এই হত্যাকাণ্ড ঘটে।

নিহত ফেরদৌস ওই বাড়ির ভাড়াটে বাসিন্দা। খুনের অভিযোগে আটককৃত রাকিবও একই বাড়ির ভাড়াটে। তারা দুইজন দীর্ঘদিনের বন্ধু এবং একই গার্মেন্টসের সহকর্মী বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

লোকমানের বাড়ির আরেক ভাড়াটে বাসিন্দা রেডিমেট কাপড় ব্যবসায়ী সুমন জানান, চাঁদ রাতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের বেচাবিক্রি ও হিসাব-নিকাশ শেষ করে রাত একটার দিকে তিনি বাসায় ফেরেন। ঘরে ঢুকেই বাড়ির গোসল খানার মধ্যে চিৎকার শুনতে পান। পরে তিনি সেখানে গিয়ে রাকিবকে রক্তমাখা ছুরি হাতে দেখতে পান।

এ দৃশ্য দেখে ভয়ে তিনি চিৎকার দিলে বাড়ির অন্যান্য ভাড়াটে বাসিন্দারা ছুটে এলে রাকিব দ্রুত বাড়ি থেকে বের হয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে ফতুল্লা থানা পুলিশ এসে ফেরদৌসের মরদেহ উদ্ধার করে।

স্থানীয়রা জানান, নিহত ফেরদৌস পটুয়াখালী জেলার শুভডুগী গ্র‍ামের আব্দুল মিয়ার ছেলে। খুনী রাকিব শরিয়তপুর জেলার পোপনচর গ্র‍ামের গোসাইর হাট থানার সোবহান মিয়ার ছেলে। তারা দুইজনই গত চার বছর লোকমান মিয়ার এই বাড়ির মেসে এক রুমে থেকেছে। এক মাস আগে ফেরদৌস বিয়ে করে তার স্ত্রী সাদিয়াকে নিয়ে একই বাড়িতে আলাদা একটি রুম ভাড়া নিয়ে বসবাস করছে। তাদের মধ্যে কোন ঝগড়া বা শত্রুতা আছে কিনা কেউ বলতে পারছেন না। তবে কি কারণে রাকিব তার ঘনিষ্ঠ বন্ধুকে খুন করেছে এ বিষয়টি কেউই আঁচ করতে পারছেন না।

নিহত ফেরদৌসের স্ত্র‍ী সাদিয়া জানান, গত একমাস আগে পারিবারিকভাবে ফেরদৌসের সাথে তার বিয়ে হয়। রাকিব তার স্বামীর বন্ধু। তবে তার স্বামী ফেরদৌস ও রাকিবের মধ্যে পূর্বে কোন শত্র‍ুতা ছিল কিনা তিনি জানেন না।

ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে প্রাথমিক তদন্তের বরাত দিয়ে মডেল থানার এসআই মামুন বলেন, নিহতের শরীরের পেটে ও বুকে ছুরিকাঘাতের চিহৃ রয়েছে। ঘটনার পর রাত আড়াইটার দিকে অভিযান চালিয়ে পঞ্চবটি এলাকা থেকে রাকিবকে আটক করা হয়েছে। হত্যাকান্ডের কারন এখনো জানা যায়নি। রাকিব এখনো মুখ খোলেনি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে ।

এদিকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সদরের জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান থানা পুলিশের এই কর্মকর্তা।