করোনাভাইরাসের তীব্রতা কমে এসেছে, দাবি এইমসের

১১:০৮ অপরাহ্ণ | বুধবার, জুন ৩, ২০২০ আন্তর্জাতিক
aiims-2

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের শীর্ষ স্থানীয় মেডিক্যাল গবেষণা প্রতিষ্ঠান অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেসের (এইমস) পরিচালক ডা রণদ্বীপ গুলেরিয়া বলেছেন, নতুন করোনাভাইরাসের তীব্রতা কমে গেছে এবং বর্তমানে ৯০ শতাংশ ক্ষেত্রে হালকা লক্ষণ দেখা যায়।

তিনি বলেন, প্রথম দিকে যারা এই রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন, তাদের গুরুতর লক্ষণ ছিল। কারণ তাদের আইসোলেশনে রাখা হয়েছিল, ভাইরাসটির বেশি বিস্তার ঘটতে পারেনি। সম্প্রতি দেশটির ইংরেজি দৈনিক হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য তুলে ধরা হয়।

ডা. রণদ্বীপ গুলেরিয়ার দাবি, ভারতীয়দের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক বেশি। কারণ তাদের অধিকাংশের বিসিজি ভ্যাকসিন নেওয়া রয়েছে। তাছাড়া বর্তমানে দেশে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে একেবারে অল্পসংখ্যক রোগী আইসিইউ কিংবা ভেন্টিলেটরে রয়েছেন। তবে তিনি বলেছেন ভারতে করোনাভাইরাসের কমিউনিটি সংক্রমণ না হওয়ায় হটস্পটের লোকজনকে আরও বেশি সতর্ক হওয়া দরকার।

ভারতে করোনা চিকিৎসায় রেমডেসিভির এবং হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের ব্যাপারে তিনি বলেন, রেমডেসিভির রোগীর হাসপাতালে থাকার সময় কমিয়ে আনছে। কিন্তু গুরুতর রোগীদের ক্ষেত্রে মৃত্যুহার কমাতে তেমন কোনও ভূমিকা রাখতে পারছে না। হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন মৃদু উপসর্গের করোনা রোগীদের জন্য সহায়ক।

উল্লেখ্য গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে করোনার উৎপত্তি হওয়ার পর বিশ্বের দুই শতাধিক দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। চীনে ৪ হাজার ৬৩৪ জনের প্রাণ কাড়লেও এই ভাইরাস বিশ্বে প্রাণহানি ঘটিয়েছে ৩ লাখ ৮৩ হাজারের বেশি। এছাড়া আক্রান্ত হয়েছেন ৬৪ লাখ ৮২ হাজারের বেশি মানুষ।

ভারতে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ১১ হাজার ৭৭০ জন প্রানঘাতী এই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। যাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লাখ ২ হাজার ৩৫৩ জন। দেশটিতে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার হার ৪৮ দশমিক ৩৩ শতাংশ।