রংপুরে কাউন্সিলরকে লাঞ্চিত করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ, ৩ দিনের আলটিমেটাম

৭:২০ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুন ৪, ২০২০ দেশের খবর, রংপুর

সাইফুল ইসলাম মুকুল, রংপুর প্রতিনিধি- রংপুর সিটি করপোরেশনের ১২নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রবিউল আলম রতনকে লাঞ্চিত করার প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে সিটি করপোরেশনের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান করে বিক্ষোভ করেছে ওয়ার্ড কাউন্সিলররা।

এ ঘটনার জন্য সিটি মেয়র মোস্তফার ভাই আনিস ও তার লোকজনদের দায়ী করেছে। কাউন্সিলররা রোববার পর্যন্ত আলটিমেটাম ঘোষণা করে বলেছেন এই সময়ের মধ্যে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া না হলে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

সমাবেশে কাউন্সিলররা অভিযোগ করেন, মোস্তাফিজার রহমান মেয়র নির্বাচিত হবার পর করপোরেশনকে পারিবারিক ও দলীয় প্রতিষ্ঠানে পরিণত করেছেন। করপোরেশনের উন্নয়ন কাজের বেশীর ভাগ ঠিকাদারি তার ভাই আনিস ও তার দলীয় ক্যাডাররা জোর জবরদস্তি টেন্ডার কন্ট্রোল করে। তারা কাউকেই টেন্ডার ড্রপ করতে দেয়না। এছাড়াও সার্বক্ষণিক বহিরাগত সন্ত্রাসীরা অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে মেয়রের আশেপার্শ্বে ও তার ভাই আনিসের বর্ডিগার্ড হিসেবে অবস্থান করে।

বৃহস্পতিবার করপোরেশনের ১৫টি গ্রুপের টেন্ডার দাখিলের তারিখ ছিল। এরমধ্যে এক নম্বর গ্রুপটি মেয়রের ভাই আনিস তার ক্যাডার বাহিনী কন্ট্রোল করছিল। অন্য কাউকে ওই গ্রুপে টেন্ডার দাখিল দাখিল করতে বাঁধা প্রদান করায় ১২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সির্ল রবিউল আবেদীন রতন প্রতিবাদ করলে মেয়রের ভাই আনিসের ক্যাডাররা তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করে। এরপর তারা কাউন্সিলরদের সম্পর্কে অশালীন আপত্তিকর গালাগাল দেয়।

এসময় কাউন্সিলরা আরও বলেন, মেয়র যেমন নিজে জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন তেমনি কাউন্সিলররাও জনগণের ভোটে নির্বাচিত। এভাবে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের লাঞ্চিত করা হলে তা সহ্য করা হবেনা। এ ঘটনায় দায়ীদের রোববারের মধ্যে মেয়র ব্যবস্থা না নিলে কঠোর কর্মসুচি গ্রহণ করার ঘোষণা দেয়া হয়।

সার্বিক বিষয়ে কথা বলার জন্য সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমানের সাথে সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার ভাই আনিসের ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করে বলেছেন, তার নাম জড়িয়ে আমাকে হেয় করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আসলে কিছু কাউন্সিলর আনডিউ এ্যাডভানটেজ চেয়ে না পাওয়ায় তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে জানান তিনি।

এর আগে রংপুর সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলররা করপোরেশনের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, প্যানেল মেয়র মাহবুবার রহমান টিটু, ২০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সির্ল তৌহিদুল ইসলাম, ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহবুবার রহমান মজ্ঞু, ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সির্ল হারাধন রায়, ১৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাকারিয়া আলম শিবলু, সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর ফেরদৌসি বেগম।