• আজ ৩০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দাফনের ৩ দিন পর লাশ তুলে বিএসএফের কাছে হস্তান্তর

৩:৪৫ অপরাহ্ণ | শনিবার, জুন ৬, ২০২০ সিলেট
bozro

মঈনুল হাসান রতন, হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ আদালতের আদেশে কবর থেকে লাশ উত্তোলনের পর শুক্রবার (৫ জুন) বিকেলে হবিগঞ্জের খোয়াই নদীতে উদ্ধার টিটন শীল জন্টু (৪০) নামে যুবকের মরদেহ ‘বিএসএফ’এর কাছে হস্তান্তর করেছে ‘বিজিবি’। ‘বিজিবি’-৫৫ ব্যাটালিয়ান কমান্ডার লে. কর্ণেল সামিউন্নবী চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এসময় চুনারুঘাট থানার ওসি শেখ নাজমুল হক উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লস্করপুর ইউনিয়নের খোয়াই নদী থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ। এ সময় তার প্যান্টের পকেটে পাওয়া যায় ভারতীয় ১০ রূপির ১ একটি নোট ও একটি চাবির ছড়া। বুধবার সকালে মরদেহটি হবিগঞ্জ শহরের রাজনগর কবর স্থানে অজ্ঞাত হিসেবে দাফন করে আঞ্জুমানে মুফিদুল ইসলাম।

এদিকে, খোয়াই জেলার সিনিয়র সাংবাদিক আশিষ চক্রবর্তীর মাধ্যমে খবর পেয়ে টিটন শীলের পরিবার লাশ শনাক্ত করে এবং খোয়াই পুলিশকে জানায়। পরে ভারতীয় পুলিশ ‘বিএসএফ’ এর মাধ্যমে হবিগঞ্জ থানায় যোগাযোগ করে এবং ছবি দিয়ে লাশ শনাক্ত করে। এ নিয়ে ‘বিএসএফ-বিজিবি’র মধ্যে অনলাইন বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে নেতৃত্বে দেন বাল্লা ‘বিজিবি’ কমান্ডার মোঃ সেলিম আহমেদ ও ভারতের ত্রিপুরার সিংগিছড়া ‘বিএসএফ’ ক্যাম্পের কমান্ডার আত্রেবা শর্মা।

এ বিষয়ে বাল্লা ‘বিজিবি’ কমান্ডার নায়েক সুবেদার মোঃ সেলিম আহমেদ জানিয়েছেন, ‘বিজিবি’ ৫৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়কের সিদ্ধান্ত মোতাবেক আইনী প্রক্রিয়া শেষে লাশ হস্তান্তর করা হয়।

খোয়াই জেলার সিনিয়র সাংবাদিক আশীষ চক্রবর্তী জানান, গত ২৯ মে রাতে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের খোয়াই থানার পশ্চিম সোনাতলা গ্রামের মৃত যতি মোহন শীলের ছেলে টিটন শীল জন্টু বাড়ি ফেরার জন্য খোয়াই নদী পাড় হতে গিয়ে পানির স্রোতে ভেসে যায়। এরপর থেকে সে নিখোঁজ ছিল।

হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি মাসুক আলী জানান, ‘বিজিবি’র মাধ্যমে লাশটি ভারতীয় নাগরিকের বলে শনাক্ত হয়েছে। আদালতের আদেশে আজ শুক্রবার (৪ জুন) বিকেলে কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে ‘বিজিবি’র সহযোগীতায় ভারতীয় পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

হবিগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট উম্মে ইসরাত জানান, পুলিশের কাছ থেকে লাশ উত্তোলনের চিঠি পাওয়ার পর সিনিয়র সহকারী কমিশনার মাসুদ রানাকে দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।