• আজ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১৪ প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করল স্বাস্থ্য অধিদফতর

১০:০৪ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুলাই ৯, ২০২০ জাতীয়
sas

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ সরকারি অর্থের অপব্যবহার, অস্বচ্ছতা এবং দুর্নীতি করে বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের যন্ত্রপাতি কেনাকাটার অভিযোগে ১৪টি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

বৃহষ্পতিবার (৯ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) ডা. মো. বেলাল হোসেন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এই কথা জানানা হয়।

চিঠিত বলা হয়, ‘স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনালয়, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের প্রদত্ত নির্দেশনার প্রেক্ষিতে উল্লেখিত কালো তালিকাভুক্ত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানসহ প্রতিষ্ঠানের স্বত্ত্বাধিকারীর সাথে কোন প্রকার দাপ্তরিক ক্রয় সংক্রান্ত কাজে সম্পৃক্ত না হওয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হলো।’

এর আগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সুপারিশে গত ৯ জুন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপ-সচিব হাসান মাহমুদের স্বাক্ষরে এক চিঠিতে এই ১৪ প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে নির্দেশ দেয়া হয়।

যে সকল প্রতিষ্ঠান কালো তালিকা ভুক্ত করা হয়েছে তাদের মধ্যে প্রথমেই রয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হিসাবরক্ষক মো. আবজাল হোসেনের স্ত্রী রুবিনা খানমের ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল এবং রূপা ফ্যাশনের নাম। এছাড়াও তালিকাতে রয়েছে মের্সাস অনিক ট্রেডার্সের মালিক আব্দুল্লাহ আল মামুন, মেসার্স আহমেদ এন্টারপ্রাইজের মালিক মুন্সী ফররুখ হোসাইন, মেসার্স ম্যানিলা মেডিসিন অ্যান্ড মেসার্স এস কে ট্রেডার্সের মনজুর আহমেদ, এমএইচ ফার্মার মোসাদ্দেক হোসেন।

আরও রয়েছে- মেসার্স অভি ড্রাগসের মো. জয়নাল আবেদীন, মেসার্স আলবিরা ফার্মেসির মো. আলমগীর হোসেন, এস এম ট্রেডার্সের মো. মিন্টু, মেসার্স মার্কেন্টাইল ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের মো. আব্দুস সাত্তার সরকার ও মো. আহসান হাবিব, বেঙ্গল সায়েন্টিফিক অ্যান্ড সার্জিক্যাল কোম্পানির মো. জাহের উদ্দিন সরকার, ইউনির্ভাসেল ট্রেড করপোরেশনের মো. আসাদুর রহমান, এ এস এলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আফতাব আহমেদ এবং ব্লেয়ার এভিয়েশনের মো. মোকছেদুল ইসলাম।

Skip to toolbar