সংবাদ শিরোনাম
জীবনসঙ্গিনী খুঁজে নিলেন চাহাল | এবার ১২০০ কোটি রুপি ব্যয়ে আকাশছোঁয়া ‘হনুমানের মূর্তি’ তৈরি হচ্ছে ভারতে | লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা বৃদ্ধি, আবারো চীনা সেনা মোতায়েনের দাবি ভারতের | হাজিদের পাথর নিক্ষেপে পদদলিত হয়ে মৃত্যু থামিয়ে ছিলেন এই বাংলাদেশি ইঞ্জিনিয়ার | লামায় ৯ বছরের শিশু ধর্ষিত, ধর্ষক আটক | পিরোজপুরে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের দুই ভুয়া কর্মকর্তা গ্রেপ্তার | বঙ্গমাতার জন্মদিন উপলক্ষে তানোরে সেলাই মেশিন বিতরণ | ‘করোনার চেয়েও বড় সংকট হয়তো সামনে আসছে’- বিল গেটস | সিফাতের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ | কাউখালীতে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের চেষ্টা, লম্পট গ্রেফতার |
  • আজ ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বিশ্বে একদিনে সর্বোচ্চ করোনা শনাক্ত

৪:০৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, জুলাই ১১, ২০২০ আন্তর্জাতিক
corona

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বিশ্বে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২ লাখ ২৮ হাজার ১০২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। যা একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড। এছাড়া একই সময়ে মারা গেছেন ৫৩১০ জন। করোনা নিয়ে আপডেট দেয়া ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে যে সোয়া দুই লাখের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে এর উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে কয়েকটি দেশে। এরমধ্যে রয়েছে শীর্ষ সংক্রমিত তিন দেশ যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল এবং ভারত। তালিকায় আরেকটি নাম হলো দক্ষিণ আফ্রিকায়। সেখানেও সংক্রমণ বাড়ছে খুব দ্রুতই।

চীনের উহানে করোনা সংক্রমণ সৃষ্টি হলেও এখন অদৃশ্য এই ভাইরাসটির বেশি প্রকোপ আমেরিকা ও দক্ষিণ এশিয়ায়। ইউরোপের কিছু দেশেও ফের ভাইরাসটির সংক্রমণ বেড়েছে। নতুন করে আক্রান্তের রেকর্ড হয়েছে চীন-জাপানেও। ফলে দ্বিতীয় দফার সংক্রমণ নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সতর্ক করেছে, অনেকে দেশে করোনার সংক্রমণের মাত্রা মারাত্মক ঊর্ধ্বমুখী। তাই করোনা প্রতিরোধের পদক্ষেপ দ্বিগুণ করতে হবে।

করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে প্রথম অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার (১০ জুলাই) দেশটিতে সর্বোচ্চ ৭১ হাজারেরও বেশি করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর আগে দেশটিতে টানা দুই দিন ৬১ হাজারের বেশি শনাক্ত হয়। সেখানে নতুন করে মারা গেছেন ৮৪৯ জন। ফলে দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ লাখ ৩৬ হাজার ৬৭১ জন।

ব্রাজিলেও প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। দেশটিতে একদিনে ৪৫ হাজারের বেশি করোনা শনাক্ত হয়েছে। মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮ লাখ ৪ হাজার ৩৩৮ জন। আর একদিনে মারা গেছে ১ হাজার ২৭০ জন। ফলে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৭০ হাজার ৫২৪ জন।

অন্যদিকে, ভারতে গত তিনদিনে এক লাখের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মোট শনাক্তের সংখ্যা ৮ লাখ ২২ হাজার ৬০৩ জন। দেশটিতে একদিনে ২৭ হাজারেরও বেশি শনাক্ত এবং ৫২১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ডব্লিউএইচও’র দেওয়া হিসাব অনুযায়ী, এতদিন পর্যন্ত সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ড হয়েছিল গত ৪ জুলাই। ওইদিন বিশ্বজুড়ে সর্বোচ্চ ২ লাখ ১২ হাজার ৩২৬ জন কোভিড-১৯ পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হন। এরপর তা আরও বাড়ছেই। তবে দৈনিক মৃত্যুর গড় হার পাঁচ হাজারের নিচে রয়েছে।

বিশ্বজুড়ে সংক্রমণের সঙ্গে তুলনায় মৃত্যু অতটা না বাড়লেও মৃত্যুর সংখ্যা একটু একটু করে বাড়তির দিকে যাচ্ছে বলে মনে হচ্ছে। গত জুনেও দৈনিক গড়ে দেড় লাখের কম রোগী শনাক্ত হয়েছে, মারা গেছেন সাড়ে ৪ হাজারের কিছু বেশি। চলতি মাসে তা যে বাড়তে শুরু করেছে প্রথম দশ দিনের হিসাবেই তা স্পষ্ট।

এদিকে বাতাসের মাধ্যমেও করোনাভাইরাস ছড়ানোর ‘প্রমাণ’ যে আসতে শুরু করেছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তা স্বীকার করেছে অবশেষে। বাতাসের মাধ্যমেও করোনাভাইরাস ছড়ানোর প্রমাণ বাড়তে থাকার মধ্যেই শনাক্ত রোগীর সংখ্যা এ মাইলফলক ছাড়াল।

Skip to toolbar