• আজ ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

একসঙ্গে থাকার ব্যাপারে যা বললেন সুশান্তের বান্ধবী রিয়া

২:৫৮ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, জুলাই ৩১, ২০২০ বিনোদন
pjimage

বিনোদন ডেস্কঃ সুশান্তের সঙ্গে ‘লিভ ইন’ সম্পর্কে ছিলেন বলে জানিয়েছেন সুশান্তের বান্ধবী রিয়া। ২০২০ সালের ৮ জুন পর্যন্ত তারা একই সঙ্গে ছিলেন। ৮ জুনের পর সুশান্তের ফ্ল্যাট ছেড়ে তিনি নিজের বাড়িতে চলে যান।

সুশান্তের সঙ্গে লিভ ইন সম্পর্কের পর হঠাৎ করে যখন তার আত্মহত্যার খবর পান, ওই সময় মানসিকভাবে তিনি বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন। কিন্তু সুশান্তের মৃত্যুর পর কৃষ্ণ কিশোর সিং তাকে মিথ্যে অভিযোগে ফাঁসিয়ে দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন রিয়া। নিজের প্রভাব খাটিয়ে কৃষ্ণ কিশোর সিং তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করছেন বলেও শীর্ষ আদালতের কাছে আবেদন করেন রিয়া চক্রবর্তী।

রিয়া চক্রবর্তীর পাশাপাশি সুশান্তের বন্ধু সিদ্ধার্থ পিটানিও উলটো সুরে মন্তব্য করছেন। সম্প্রতি মুম্বাই পুলিশকে মেইল করেন সিদ্ধার্থ। যেখানে তিনি দাবি করেন, রিয়ার বিরুদ্ধে বয়ান দেওয়ার জন্য সুশান্তের পরিবার তাঁর উপর চাপ প্রয়োগ করছে।

গত ২২ জুলাই সুশান্তের পরিবারের কয়েকজন তাঁকে ফোন করেন। যেখান ও পি সিং, মিতু সিং এবং একজন অচেনা ব্যক্তি তাঁর সঙ্গে কথা বলেন। সেখানেই রিয়ার বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে বয়ান দেওয়ার জন্য তাঁর উপর চাপ প্রয়োগ করে রাজপুত পরিবার। সম্প্রতি এমনই অভিযোগ করেন সুশান্ত সিং রাজপুতের বন্ধু সিদ্ধার্থ পিটানি।

উল্লেখ্য ১৪ জুন সুশান্ত সিং রাজপুতকে নিজের বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়ার পর পুলিশ অনুমান করে যে, অভিনেতা আত্মহত্যা করেছিলেন। যদিও পরে এই মৃত্যু নিয়ে নানা রহস্যের গন্ধ পাওয়া যায়। এমনকী এই অভিযোগও ওঠে যে সুশান্ত বলিউডের কুখ্যাত নেপোটিজমের শিকার।

মহারাষ্ট্র পুলিশ তদন্তে নেমে এখনও পর্যন্ত রিয়া চক্রবর্তী, পরিচালক-প্রযোজক সঞ্জয় লীলা বনসালি, চলচ্চিত্র নির্মাতা আদিত্য চোপড়া, পরিচালক মুকেশ ছাবড়া, চলচ্চিত্র নির্মাতা শেখর কাপুর এবং চলচ্চিত্র সমালোচক রাজীব মাসান্দ সহ ৪০ জনেরও বেশি মানুষকে ইতিমধ্যেই জিজ্ঞাসাবাদ করেছে।

Skip to toolbar