সংবাদ শিরোনাম
রাস্তা ভেঙ্গে পুকুরের পেটে ৩ মাস, সংস্কারের উদ্দ্যোগ নেই কতৃপক্ষের! | ‘প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী হওয়া স্বত্ত্বেও আমার মায়ের কোনো অহমিকা ছিল না’- শেখ হাসিনা | বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে ফেরত পাঠাতে ট্রাম্পকে প্রধানমন্ত্রীর চিঠি | নিরবে নিভৃতে বাঙালি জাতির জন্য কাজ করে গেছেন বঙ্গমাতা: মেয়র তাপস | ‘বঙ্গমাতা ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সার্বক্ষণিক রাজনৈতিক সহযোদ্ধা’- কাদের | ভারতে আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা | সহকারী কোচসহ জাতীয় দলের ১৮ ফুটবলার করোনা আক্রান্ত! | ভারতে বিমান দুর্ঘটনা: দুই পাইলটসহ ২০ জনের মৃত্যু | করোনা ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু করছে সিঙ্গাপুর | বিশ্বে একদিনেই ৬ হাজারের বেশি মৃত্যু, মোট প্রাণহানি ৭ লাখ ২৪ হাজার |
  • আজ ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দেশের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে যা জানালো দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়

৩:৫২ অপরাহ্ণ | রবিবার, আগস্ট ২, ২০২০ জাতীয়
bonna

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ সাম্প্রতিক বন্যায় দেশের ৩৩টি জেলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে মানবিক সহায়তা হিসেবে ১৪ হাজার ৪১০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ এবং ৯ হাজার ২২১ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়েছে। রোববার (২ আগস্ট) দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বন্যাকবলিত জেলা প্রশাসনসমূহ থেকে ১ আগস্ট পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী নগদ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে তিন কোটি ৪৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। আর এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে দুই কোটি ২৯ লাখ আট হাজার ৭০০ টাকা। শিশু খাদ্য সহায়ক হিসেবে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে এক কোটি ১০ লাখ টাকা। এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে ৬২ লাখ ৫৪ হাজার টাকা। গো খাদ্য কেনার জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে দুই কোটি ৭৮ লাখ টাকা। বিতরণের পরিমাণ এক কোটি ২০ লাখ ছয় হাজার টাকা। শুকনো ও অন্যান্য খাবারের প্যাকেট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে এক লাখ ৫২ হাজার। এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে এক লাখ ১১ হাজার ৯২২ প্যাকেট।

এছাড়া ঢেউটিন বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ৩০০ বান্ডিল এবং এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে ১০০ বান্ডিল, গৃহ মন্জুরি বাবদ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ৯ লাখ টাকা। বিতরণ করা হয়েছে তিন লাখ টাকা।

বলা হয়েছে, বন্যাকবলিত জেলাসমূহ হচ্ছে ঢাকা, গাজীপুর, টাঙ্গাইল, মানিকগঞ্জ, ফরিদপুর, মুন্সিগঞ্জ, রাজবাড়ী, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, গোপালগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, জামালপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, রাজশাহী, নওগাঁ, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, পাবনা, রংপুর, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, গাইবান্ধা, লালমনিরহাট, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ এবং সুনামগঞ্জ। বন্যাকবলিত উপজেলার সংখ্যা ১৫৯টি এবং ইউনিয়নের সংখ্যা ১০১৯টি। পানিবন্দি পরিবার সংখ্যা ১১ লাখ ১৪ হাজার ৫০৮টি এবং ক্ষতিগ্রস্ত লোক সংখ্যা ৫৪ লাখ ৪০ হাজার ৩৩১ জন । বন্যায় এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৪৩ জন।

এরমধ্যে জামালপুরে ১৫ জন, লালমনিরহাটে একজন, সুনামগঞ্জে তিনজন, সিলেটে একজন, কুড়িগ্রামে ৯ জন, টাঙ্গাইলে চারজন, মানিকগঞ্জে দুইজন, মুন্সীগঞ্জে একজন, গাইবান্ধায় একজন, নওগাঁয় দুইজন, সিরাজগঞ্জে দুইজন এবং গোপালগঞ্জে দুইজন মৃত্যুবরণ করেছেন।

বন্যাকবলিত জেলাসমূহে আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে এক হাজার ৫৩৩টি। আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রিত লোক সংখ্যা ৬৩ হাজার ৪০৯ জন। আশ্রয়কেন্দ্রে আনা গবাদি পশুর সংখ্যা ৭৮ হাজার ৪৬টি। বন্যাকবলিত জেলাসমূহে মেডিক্যাল টিম গঠন করা হয়েছে ৯৬৭টি। বর্তমানে চালু রয়েছে ৩৯৯টি।

Skip to toolbar