🕓 সংবাদ শিরোনাম

খুব শীঘ্রই ঢাকা ডিটেইলড এরিয়া প্ল্যান-ড্যাপ গেজেট আকারে প্রকাশ করা হবে:গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রীসিলেটে নারী পুলিশের সাথে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা, ইন্সপেক্টর ক্লোজডনিরাপদ সড়ক বিষয়ে পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার: তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রীআফ্রিকা থেকে আসা কাউকে বোর্ডিং পাস দেয়া হবে না : পররাষ্ট্রমন্ত্রীকিশোরীকে জন্মনিবন্ধন দেওয়ার কথা বলে কাউন্সিলরের ধর্ষণচেষ্টামানিকগঞ্জে পানির জন্য হাহাকারচেয়ারম্যান হয়েই ১০ হাজার মানুষের কষ্ট দূর করলেন মাসুদ তালুকদারহাফ ভাড়ার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করুন: কাদেরমেয়র আব্বাসকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশচট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত ৭ জন

  • আজ শুক্রবার, ১৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৷ ৩ ডিসেম্বর, ২০২১ ৷

মান্দায় কেরাম বোর্ড খেলার তুচ্ছ ঘটনায় প্রতিপক্ষের মারপিটে আহত-২


❏ শনিবার, জুন ১৮, ২০১৬ দেশের খবর, রাজশাহী

এম এম হারুন আল রশীদ হীরা, মান্দা প্রতিনিধি:


mk

নওগাঁর মান্দায় সকালে ভাঁরশো ইউপির বাঁকাপুর উত্তরপাড়া গ্রামের ঈদগাঁ মোড়ের দোকানের পার্শ্বে কেরাম বোর্ড খেলার তুচ্ছ ঘটনায় ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের মারপিটে রহিদুল ইসলাম (২৬) ও শহিদুল ইসলাম (২৮) নামে দুইজন আহত হয়েছেন।

সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গেলে এলাকাবাসীরা জানান, ভিকটিম রহিদুল ইসলামের সাথে দীর্ঘদিন থেকে একই গ্রামের আবুল কাশেম মন্ডলের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম ও আলমগীর হোসেনের কোন্দল চলে আসছিল। ঘটনার দিন গত বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে কেরাম বোর্ড খেলার তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে বাঁকাপুর উত্তরপাড়া গ্রামের জানবক্স জানুর ছেলে বিপ্লবের সাথে বাগ-বিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে আলমগীর হোসেন গংরা গালি-গালাজ শুরু করে।

এ সময় রহিদুল ইসলাম এসে রমজান মাসের কারণে তাদেরকে সেখানে গন্ডগোল করতে নিষেধ করেন। কিন্তু হঠাৎ করে প্রতিপক্ষ আলমগীর গংরা কথাকাটির এক পর্যায়ে লাঠি-সোটা, রড দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মারপিট করে রহিদুল ইসলামকে গুরুতর জখম করে। এ সময় তার বড় ভাই শহিদুল ইসলাম এগিয়ে এলে তাকে ও মারপিট করে আহত করে তার কাছে সমিতির অনুমান সাড়ে তিন হাজার টাকা ছিনতাই করে হত্যার হুমকি দিয়ে সটকে পড়ে। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় মামলা করা হবে বলে আহতের পিতা আফছার আলী সাংবাদিকদের জানান। আজ শনিবার দুপুরে মান্দা থানার উপ-পরিদর্শক মজিবুর রহমান মান্দা স্বাস্থ্য কমপেক্স ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাফফর হোসেন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, তিনি এক পক্ষের লিখিত এজাহার পেয়েছেন। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। উভয়পক্ষ স্থানীয়ভাবে বসে মিমাংসা করবেন বলে তিনি আরো জানান।